গ্রাহক ব্যাংকের কাছে প্রতিদিনের লেনদেন প্রতিবেদন দেবে সুইফট
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

গ্রাহক ব্যাংকের কাছে প্রতিদিনের লেনদেন প্রতিবেদন দেবে সুইফট

ভুয়া আদেশ দ্রুত শনাক্ত এবং এর প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে গ্রাহক ব্যাংকগুলোকে প্রতিদিনের লেনদেনের প্রতিবেদন পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে আন্তর্জাতিক লেনদেনের মেসেজিং নেটওয়ার্ক সুইফট।

আজ মঙ্গলবার রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তীতে এ ধরনের চুরি ঠেকাতে নেওয়া উদ্যোগের অংশ হিসেবে এ পরিকল্পনা করা হয়েছে।

সুইফটের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আগামী ডিসেম্বর থেকে গ্রাহক ব্যাংকগুলোর লেনদেনের প্রতিবেদন প্রতিদিন তাদের কাছে পাঠানো শুরু করা হবে।SWIFT

এতে সুইফট টার্মিনাল ব্যবহারের মাধ্যমে পাঠানো সব মেসেজের তালিকা গ্রাহক ব্যাংকগুলোর কাছে তালিকা থাকবে। কোনো ভুয়া পরিশোধের নির্দেশ থাকলে গ্রাহক ব্যাংকগুলো ওই তালিকা থেকে তা সহজেই শনাক্ত করতে পারবে।

গ্রাহকের চিরাচরিত পরিশোধের ধরন থেকে লেনদেনের নির্দেশনায় কোনো বিচ্যুতি আছে কি না- সে বিষয়েও ঝুঁকি বিশ্লেষণী প্রতিবেদন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সুইফট কর্তৃপক্ষ।

আন্তর্জাতিক আন্তঃব্যাংক লেনদেনের জন্য বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান সুইফট। তাদের নেটওয়ার্ক ব্যবহারের মাধ্যমে সারাবিশ্বে প্রতিদিন কয়েক ট্রিলিয়ন ডলারের আন্তঃব্যাংক লেনদেন হতো।

তবে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে সুইফটের মেসেজের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি এবং এরপর আরও কয়েকটি চুরির ঘটনা প্রকাশ পাওয়ায় এ নেটওয়ার্কিং ব্যবস্থার উপর সারা বিশ্বের ব্যাংক কর্তৃপক্ষের আস্থা হ্রাস পেয়েছে বলে রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারির শুরুতে সুইফট সিস্টেম ব্যবহার করে ৩৫টি ভুয়া বার্তা পাঠিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্ক থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রায় এক বিলিয়ন ডলার সরানোর চেষ্টা হয়। এর মধ্যে চারটি মেসেজের মাধ্যমে গত ৪ ও ৫ই ফেব্রুয়ারি হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার ফিলিপাইনের রিজাল ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে যায়।

আর একটি মেসেজের মাধ্যমে শ্রীলঙ্কার একটি ‘ভুয়া’ এনজিওর নামে ২০ মিলিয়ন ডলার সরিয়ে নেওয়ার সময় বানান ভুলের কারণে সন্দেহ হওয়ায় শেষ মুহূর্তে তা আটকে যায়।

রিজাল ব্যাংকে যাওয়া অর্থের একটি বড় অংশ পরে ফিলিপিন্সের জুয়ার টেবিলে চলে যায়। এর মধ্যে দেড় কোটি ডলার এক ক্যাসিনো মালিক ফিলিপাইন সরকারের কাছে ফেরত দিয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন আগামী ২২ সেপ্টেম্বর প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ