আর্জেন্টিনার স্কোয়াডে অবশেষে হিগুয়েন
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আর্জেন্টিনার স্কোয়াডে অবশেষে হিগুয়েন

দুই ম্যাচ পর আবারও আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন গঞ্জালো হিগুয়েন। আগামী মাসের দুটি বাছাইপর্বের ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডে এ স্ট্রাইকারকে দলে ডেকেছেন আর্জেন্টিনার কোচ এদগার্দো বাউজা। একইসঙ্গে সার্জিও আগুয়েরোকেও স্কোয়াডে রেখেছেন তিনি।

২০১৫-১৬ মৌসুমের শেষ দিকে রেকর্ড দামে জুভেন্তাসে যোগ দিয়েছেন হিগুয়েন। অন্যদিকে জাতীয় দলের জার্সিতে নকআউট পর্বে ভালো করতে না পারায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। এমনকি টুর্নামেন্টের নকআউট পর্বে হিগুয়েইনের মানসিক চাপ নেওয়ার ক্ষমতার প্রশ্ন তুলে তাকে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রথম স্কোয়াডে রাখেননি কোচ। এই স্ট্রাইকারের বদলে জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন আলারিও এবং প্রাত্তো।

প্রাথমিক স্কোয়াডে নাম না থাকলেও কোচের ডাকের অপেক্ষার কথা জানিয়েছিলেন হিগুয়েন। আর মাঠেই সমালোচনার জবাব দিয়েছেন তিনি। জুভেন্টাসের জার্সি গায়ে নতুন মৌসুমের প্রথম চার শট থেকে ৩টি গোল আদায় করেছেন হিগুয়েন। অবশেষে এমন পারফমেন্সের কারণে তার অপেক্ষার অবসান হলো।

gonzalo-higuain

গঞ্জালো হিগুয়েন।

হিগুয়েন আবারও নিজের রূপে ফিরেছেন- এমনটি বুঝতে পেরেই হয়তো জাতীয় দলে তাকে ডেকেছেন আর্জেন্টাইন কোচ এদগার্দো বাউজা। পেরু ও প্যারাগুয়ের বিপক্ষের ম্যাচে ৯ নম্বর জার্সিতে হয়তো দেখা যাবে তাকে।

বাউজা বলেন, আমি হিগুয়েইনের সঙ্গে কথা বলেছি, সবকিছুই ভালোভাবে হয়েছে। দলের ফেরার ব্যাপারে সে খুবই উৎসাহী; জাতীয় দলের হয়ে মাঠে ফিরতে ওর আর তর সইছে না।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাউজার প্রাথমিক স্কোয়াডেই ছিলেন আগুয়েরো। তবে পেশির চোটের কারণে আগের ম্যাচে খেলতে পারেননি তিনি। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বশেষ ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে হ্যাট্রিক করেছেন আগুয়েরো। এর পাশাপাশি ক্লাবের ৫ ম্যাচে ৯ গোল করার পুরষ্কার হিসেবে ২৪ সদস্যের দলে তাকেও রাখা হয়েছে।

এদিকে চোটের কারণে দলে ডাক পাননি পিএসজি মিডফিল্ডার হাভিয়ের পাস্তোরে এবং ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দি। অন্যদিকে লাল কার্ডের নিষেধাজ্ঞা পেরিয়ে আবারও জাতীয় দলে ফিরবেন দিবালা।

গোলরক্ষক হিসেবে বাউজার প্রথম পছন্দ অবশ্যই সার্জিও রোমেরো। তাই তাকে নিয়েই দল সাজিয়েছেন তিনি। এই গোলরক্ষকের সঙ্গে আরও থাকছেন নাহুয়েল গুজমান।

মার্কোস রোহো, ডেমিচেলিস ও মার্কাদোর বিকল্প ডিফেন্ডার হয়তো আর্জেন্টিনায় পাওয়া যাবে না। তাই তাদেরকে মূল দলে রেখেছেন কোচ। এই ৩ জনের পাশে দেখা যাবে রনকাগলিয়া, মুসাচ্চিও, ফিউনেস মরি, জাবালেতা এবং ওটামেন্ডির যেকোনো কাউকে।

আর্জেন্টিনার মিডফিল্ড মানেই মাসচেরানো। তার সঙ্গে ডি মারিয়া এবং অগুস্তো ফার্নান্দেজতো থাকছেই। এই ৩ জনের সঙ্গে বাউজার নতুন স্কোয়াডে আরও রয়েছেন ক্রানেভিতার, বিলিয়া, বানেগা, লামেলা ও গাইতান।

মেসির নেতৃত্বে ফরোয়ার্ডের অন্য খেলোয়াড়রা হলেন অ্যাঙ্গেল কোরিয়া, হিগুয়েন, আগুয়েরো, দিবালা এবং লুকাস প্রাতো।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ