‘পরীক্ষাকেন্দ্রীক শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বের হতে হবে’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘পরীক্ষাকেন্দ্রীক শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বের হতে হবে’

পরীক্ষাকেন্দ্রীক শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে আমাদেরকে বের হয়ে আসতে হবে। নীতি নির্ধারকরা মূলধারার শিক্ষার প্রতি মনযোগ দিলেই শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তন সম্ভব।

আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত আলোচনা সভায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও গ্লোবাল ক্যাম্পেইন ফর এডুকেশনের বোর্ড সদস্য রাশেদা কে. চৌধুরী এসব কথা বলেন। শিক্ষা দিবস ২০১৬ উপলক্ষে জাতীয় শিক্ষক কর্মচারী ফ্রন্ট ও ইনিশিয়েটিভ ফর হিউম্যান ডেভেলপমেন্টের যৌথভাবে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আমাদের দেশের সাংঘর্ষিক শিক্ষা ব্যবস্থা প্রসঙ্গে রাশেদা কে. চৌধুরী বলেন, শিক্ষার্থীরা যখন দেখে শিক্ষকরা তাদের ক্লাসে মনোযোগ না দিয়ে কোচিংয়ের দিকে ছুটে যান, তখন শিক্ষা ব্যবস্থা সাংঘর্ষিক হতে বাধ্য।education-day

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে হাত ধোঁয়া দিবস ও জাতীয়ভাবে পালন করা হয়। কিন্তু শিক্ষা দিবসকে জাতীয়ভাবে পালন করা হয় না। কিন্তু কেন?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আ.আ.ম.স. আরেফিন সিদ্দিকী বলেন, আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে অবশ্যই গলদ রয়েছে। এ কারণে অনেকে শিক্ষিক হওয়া সত্বেও ভালো মানুষ হয়ে উঠছে না। যেখান থেকে শিক্ষিত ছাত্র বের হওয়ার কথা, সেখান থেকে অনেকেই ভুল পথে গিয়ে জঙ্গি হচ্ছে।

তিনি বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে গলদ থাকার পেছনে ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবকের ব্যক্তিগত ব্যর্থতা নেই। হয়তো তিনজনের মধ্যেই গলদ রয়েছে। এসব সমস্যা চিহ্নিত করার সময় এসেছে।

উপাচার্য বলেন, যে জাতি শিক্ষা নিয়ে ৫৪ বছর আগে থেকে চিন্তা করছে, সে জাতির শিক্ষা ব্যবস্থা অনেক দূর এগিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আশানুরুপভাবে এগিয়ে যেতে ব্যর্থ হয়েছি আমরা।

আয়োজক সংগঠনের প্রধান সমন্বয়কারী অধ্যাপক কাজী ফারুকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন একশনএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবির, সিদ্দেশ্বরী কলেজের অধ্যক্ষ ফয়েজ হোসেন, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির মহাসচিব মহসিন রেজা প্রমুখ।

অর্থসূচক/মাইদুল/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ