'সাক্ষরতার হার বাড়াতে জনপ্রতিনিধিদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘সাক্ষরতার হার বাড়াতে জনপ্রতিনিধিদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ’

দেশে সাক্ষরতার হার বাড়াতে এলাকার জনপ্রতিনিধিদের ভূমিকা রাখতে হবে। দেশের কোনো শিশুই আর নিরক্ষর থাকবে না। বর্তমানে দেশের সাক্ষরতার হার প্রায় ৭১ শতাংশ। এটাকে আরও বাড়ানোর লক্ষ্যেই অনেক কর্মসূচির বাস্তবায়ন করছে সরকার।

‘জাতীয় সাক্ষরতা দিবস’ উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি সংগৃহীত

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে যখন আমরা সরকার গঠন করি, তখন দেশে সাক্ষরতার হার ছিল মাত্র ৪৪ শতাংশ। এর আগে ২০০১ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতা ছাড়ার সময় এ হার ৬৫ শতাংশে ছিল। অর্থাৎ বিএনপি সরকারের ৫ বছরে সাক্ষরতার হার ৬৫ থেকে নেমে ৪৪ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর সাক্ষরতার হার বাড়াতে নতুন করে উদ্যোগ গ্রহণ করে আমরা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের সাক্ষরতার হার বেড়েছে। বর্তমানে আমাদের দেশের সাক্ষরতার হার প্রায় ৭১ শতাংশ। এটাকে আরও বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। সে লক্ষ্যেই অনেক কর্মসূচির বাস্তবায়ন করছি আমরা।

শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে বর্তমান সরকার। গ্রামের শিশুরা যাতে স্কুল ফাঁকি না দেয়, সে জন্যও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নতুন নতুন স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। পাশাপাশি স্কুলে নিম্নবিত্ত পরিবারের শিশুদের উপস্থিতি বাড়ানোর লক্ষ্যে বিদ্যালয়ে খাবারের ব্যবস্থাও করা হয়েছে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ