'হলি আর্টিজান হামলায় গ্রেনেড সরবরাহ করেছিল সোহেল মাহফুজ'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘হলি আর্টিজান হামলায় গ্রেনেড সরবরাহ করেছিল সোহেল মাহফুজ’

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার গ্রেনেড সরবরাহের সঙ্গে সোহেল মাহফুজ নামে এক ব্যক্তি জড়িত ছিল বলে জানিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট (সিটি)।

আজ শুক্রবার মিন্টু রোডের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন শেষে এ কথা জানান কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মো. মনিরুল ইসলাম। তিনি বলেন, সোহেল মাহফুজ নামে এক জঙ্গি গুলশানে ব্যবহৃত গ্রেনেড সরবরাহ করেছিল বলে তথ্য পাওয়া গেছে। নিষিদ্ধ সংগঠন জেএমবির প্রতিষ্ঠাকালীন শুরা সদস‌্য ছিল সে। প্রায় দুই আগে নতুন জেএমবিতে যোগ দেয় সোহেল মাহফুজ। এরপর থেকে আত্মগোপনে রয়েছে সে। এই পর্যন্ত পাওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, সোহেল মাহফুজই হলি আর্টিজান হামলায় গ্রেনেড সরবরাহ করেছিল।

Gulshan-Attack-1

গুলশানের হলি আর্টিজান হামলার ঘটনায় আহত একজনকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে

সোহেল মাহফুজের সন্ধানে অভিযান চলছে জানিয়ে মনিরুল ইসলাম বলেন, গুলশান হামলার ‘হোতা’ নতুন জেএমবির শীর্ষনেতা তামিম আহমেদ চৌধুরী নারায়ণগঞ্জে এক অভিযানে নিহত হলেও ‘আরেক হোতা’ নুরুল ইসলাম মারজানের সন্ধান এখনও পাওয়া যায়নি। মারজানের সন্ধানে আগে থেকে অভিযান চলছে। এখন মারজানের পাশাপাশি সোহেল মাহফুজের সন্ধানেও অভিযান চলছে।

তিনি আরও বলেন, মারজান নব্য জেএমবির সদস্য হলেও সোহেল মাহফুজ জেএমবির প্রতিষ্ঠাকালীন শুরা সদস্য। দীর্ঘদিন আত্মগোপনে থাকা সোহেল গত দুই বছর আগে নব্য জেএমবিতে যোগ দেয় বলে গোয়েন্দা তথ্য পাওয়া গেছে। গুলশান হামলার আরও আগে থেকেই জঙ্গি হিসেবে চিহ্নিত ছিল সোহেল মাহফুজ। তাকে গ্রেপ্তার করতে পারলে আরও তথ্য পাওয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, গত ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে দেশি-বিদেশি নাগরিকদের জিম্মি করে জঙ্গিরা। খবর পেয়ে সেখানে অভিযানে গিয়ে গ্রেনেড হামলায় মারা যান পুলিশের দুই কর্মকর্তা। পরদিন অভিযান চালিয়ে রেস্তোরাঁটির নিয়ন্ত্রণ নেয় সেনাবাহিনী। এর আগেই ১৭ বিদেশিসহ ২০ জনকে হত‌্যা করে জঙ্গিরা।

অর্থসূচক/পিএ/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ