হজ কোটা আরও ২০ হাজার বাড়ানোর দাবি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

হজ কোটা আরও ২০ হাজার বাড়ানোর দাবি

হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশকে (হাব) নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ে গঠিত ৯ সদস্যের কমিটি বাতিলের দাবি জানিয়েছে হাব সমন্বয় পরিষদ। একইসঙ্গে হজযাত্রীর জন্য নতুন করে আরও ২০ হাজার কোটা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

আজ রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানিয়েছেন হাব সমন্বয় পরিষদের নেতারা।

এছাড়া ব্যাগ বাণিজ্যের ১৩ কোটি টাকা এজেন্সি মালিকদের ফেরত এবং ১৭০০ হাজি অবৈধ বন্টনের তদন্তের মাধ্যমে ঘুষ কেলেংকারীর তদন্ত ও বিচারের দাবি জানান সংগঠনের নেতারা।

HUB somonnoy porishad

জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে হাব সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন।

হাব সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব রেজাউল করিম উজ্জ্বল বলেন, হাবকে নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের গঠিত ৯ সদস্য কমিটির দুর্নীতির কারণে ৪ হাজার ৮০০ কোটা পূরণ করতে প্রায় ২০ দিন সময় লেগেছে। তাদের কোটা বাণিজ্য এবং সিন্ডিকেটের কারণে ইতোমধ্যে ৩০টি হজ ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। বর্তমান এই সংকটের জন্য হাবসহ ৯ সদস্যের কমিটি দায়ী। তাদের অবহেলার কারণে নতুন কোটার মাধ্যমে হাজি পাঠানো বিলম্বিত হচ্ছে। এবার ১ হাজার ৭০০ বেসরকারি কোটা বিক্রি করেছে এই কমিটির সদস্যরা।

তিনি বলেন, ৭০০ টাকা মূল্যের প্রতিটি ব্যাগের জন্য হজযাত্রীদের কাছ থেকে ১৯০০ টাকা করে নিয়েছে হাব। শুধু ব্যাগ দেওয়ার নামেই ইতোমধ্যে প্রায় ১৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে সংগঠনটি।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে দুর্নীতিবাজ কমিটি বাতিল এবং নতুন ২০ হাজার কোটার ব্যবস্থা না করলে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার হুমকি দিয়েছেন হাব সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব রেজাউল করিম উজ্জ্বল। তিনি জানান, কমিটি বাতিল এবং নতুন ২০ হাজার কোটার ব্যবস্থা না করলে আগামী মঙ্গলবার সকাল থেকে এহরামের কাপড় পরিধান করে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার অবস্থান ধর্মঘট শুরু হবে।

নতুন ২০ হাজার কোটা বরাদ্দের পাশাপাশি থার্ড ক্যারিয়ার উন্মোও করে সকল হাজী পাঠানোর ব্যবস্থা করা, ধর্ম মন্ত্রণালয় গঠিত ৯ সদস্যের কমিটি বাতিল, ব্যাগ বাণিজ্যের ১৩ কোটি টাকা এজেন্সির মালিকদের ফেরত এবং

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের আহবায়ক রুহুল আমিন মিন্টু, সহ-সভাপতি গোলাম আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক মুজিবুল হক প্রমুখ।

অর্থসূচক/মেহেদী/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ