মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি পেলেন ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » বিবিধ

মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি পেলেন ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী

মুক্তিযোদ্ধা (বীরাঙ্গনা) হিসেবে স্বীকৃতি পেলেন ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে এ–সংক্রান্ত গেজেট ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সভায় জানানো হয়, ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীর করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন, ২০০২–এর ৭ (ঝ)–এর ধারা অনুসারে মুক্তিযোদ্ধা (বীরাঙ্গনা) হিসেবে স্বীকৃতি পেলেন প্রিয়ভাষিণী।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা সুফি আব্দুল্লাহিল মারুফ জানান, এর আগে আরও ১২২ জন বীরাঙ্গনাকে মুক্তযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ হয়েছিল। মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতির জন্য গত এপ্রিলে আবেদন করেছিলেন ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের ৩৫তম সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে মুক্তিযোদ্ধার (বীরাঙ্গনা) স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে।

তিনি জানান, এখন পর্যন্ত ১২৩ জন বীরাঙ্গনাকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধাদের মতো তারাও সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের অক্টোবরে বীরাঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল। ২০১৫ সালের ২৯ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে সেই প্রস্তাব পাস হয়। এরপর থেকে পর্যায়ক্রমে একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনী ও তাদের সহযোগীদের হাতে নির্যাতিত নারীদের মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দেওয়া হচ্ছে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ