সৌদিতে টেলিকম খাতে চাকরি থাকছে না বাংলাদেশিদের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

সৌদিতে টেলিকম খাতে চাকরি থাকছে না বাংলাদেশিদের

সৌদি আরবের নড়াচড়ায় এবার তরী ডুবতে বসেছে সে দেশে থাকা প্রবাসীদের শ্রমবাজার। সস্তা তেলে ধরা খেয়ে এখন খেলায় মেতেছে দেশটির সরকার। এক এক করে ছাঁটাই করছে প্রবাসীদের। আর তাতে রিক্ত হাতে না খেয়ে ‘বাড়ি ফিরতে’ হচ্ছে বাংলাদেশসহ অন্য দেশ থেকে যাওয়া শ্রমিকদের।

সৌদিকরণের নামে বাংলাদেশিসহ সব প্রবাসীকে টেলিকম খাত থেকে তাড়ানোর ব্যাপারে তাদের অনড় অবস্থানের কথা আবারও জানিয়ে দিয়েছে সরকার। খবর সৌদি গেজেটের।

saudi 1শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, টেলিকম সেক্টরে তারা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা কোনোভাবেই নড়চড় হচ্ছে না। এ খাতকে সম্পূর্ণ সৌদিকরণ করার ডেডলাইন বেঁধে দেওয়া হয়েছে। আর সেটি হলো আগামী ২ সেপ্টেম্বর।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী মোফরেজ আল হাকবানি এক বিবৃতিতে সৌদির সংবাদমাধ্যম ওকাজ ও সৌদি গেজেটকে বলেছেন, এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে পিছপা হওয়ার কোনো ইচ্ছা আমাদের নেই। এ খাতকে পূর্ণ সৌদিকরণ করতে আমরা মোবাইল শপ মালিকদের অতিরিক্ত সময়ও দিতে চাই না।

তিনি বলেন, আগামী ২ সেপ্টেম্বরের পর এ খাতে কোনো বিদেশি থাকবে না। সমস্ত কর্মীই হবে সৌদির নারী ও পুরুষ। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কোনো নড়চড় হবে না।

সৌদি আরবে মোট প্রবাসীর ১৪.৪ শতাংশ বাংলাদেশি। সংখ্যার হিসাবে এটি ১০ লাখ ৩১ হাজার; যা সেদেশে প্রবাসীদের মধ্যে ৩য় সর্বোচ্চ। এদের অনেকেই টেলিকম খাতের সঙ্গে জড়িত।

এ খাতে চাকরি হারানোর পর এসব শ্রমিক কোথায় যাবে, তাদেরকে দেশে ফেরত পাঠানো হবে কি-না সে ব্যাপারে প্রতিবেদনে কিছু বলা হয়নি।

এদিকে সৌদি আরবে বর্তমান শ্রমবাজার নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশ্লেষকরা। সম্প্রতি ভারত, ফিলিপাইনের শ্রমিকদের দেশটিতে রাস্তায় নামতে দেখা গেছে। তারা এখন না খেয়ে, না খেয়ে কাজের সন্ধানে ভেসে বেড়াচ্ছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের খবব, গত দেড় বছরে বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত জ্বালানির দাম কমেছে প্রায় ৭০ শতাংশ। এখনো সেখান থেকে উঠার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। ফলে বর্তমানে অর্থনীতিতে কাবু হয়েছে পড়েছে বিশ্বে অলস দেশ বলে পরিচিত সৌদি আরব। আর তার ঝাল মেটাতে এখন নানা উদ্যোগ হাতে নিচ্ছে দেশটি। এমনকি পুঁজিবাজারের মাধ্যমে এখন বিদেশি বিনিয়োগ হাত করার মতো পরিকল্পনায়ও এগিয়ে যাচ্ছে তারা।

অর্থসূচক/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ