হাবিপ্রবি’র ছাত্রলীগ নেতার দু’পায়ের রগ কেটে দিয়েছে ছাত্রশিবির

dinajpur Catraleague

Dinajpur Economyদিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি) ছাত্রলীগের সাধারণ-সম্পাদকের স্ত্রীর সামনেই জনসম্মুখেই তার দু’পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া শরীরের বিভিন্নস্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করা হয়েছে তাকে।

জানা যায়, হাবিপ্রবির ছাত্রলীগের সাধারণ-সম্পাদক অরুণ কান্তি রায় শিটন গতকাল বিকেলে কান্তনগর রাস মেলা দেখে একটি পিকআপযোগে স্বস্ত্রীক বাড়ি ফিরছিল। এ সময় বিকেল ৫টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত তাদের গতি রোধ করে কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাকে এলোপাথাড়ী কোপাতে শুরু করে। এক পর্যায়ে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা তার দু’পায়ের রগ কেটে দেয়। এ সময় তার স্ত্রীর আর্তচিৎকারে বাজারের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। সে সময় হামলাকারীরা সেখান থেকে চলে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে হাবিপ্রবির ছাত্রলীগের সভাপতি ইফতেখার আহমেদ রিয়াল মোবাইল ফোনে জানায়, মেলা দেখে স্ত্রীকে নিয়ে ফেরার সময় বহিরাগত ছাত্রশিবিরের ক্যাডাররা অরুণ কান্তি রায় শিটনকে তার স্ত্রীর সামনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে দু’পায়ের রগ কেটে দিয়েছে। এ পৈশাচিকতা শিবির ছাড়া আর কারও দ্বারা সম্ভব না। ছাত্রশিবির ছাড়া কারও সাথে কোনো বিবাদ নেই আমাদের।

হাবিপ্রবি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শিহাবুল আউয়াল জানান, ছাত্রশিবিরের কিছু নেতাকর্মী পিকআপটিকে আটক করে অরুণকে বের করে। এ সময় তারা অরুণকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দু’পায়ের রগ কেটে দেয় এবং বুকের ডানপার্শ্বে আঘাত করে। এ সময় শিবিরের নেতাকর্মীরা তার ব্যবহৃত পিকআপটিও ভাংচুর করে।

এদিকে কাহারোল থানা ওসি মোসাদ্দেরুল ইসলাম জানান, সে কান্তনগর রাস মেলার একজন পার্টনার। মেলা থেকে ফেরার পথে কে বা কারা তার উপর হামলা করেছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। তবে বিস্তারিত জানতে পারি নি।

এএস