এই ১০ গাড়ি আপনার জীবনে দেবে দুর্দান্ত গতি!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এই ১০ গাড়ি আপনার জীবনে দেবে দুর্দান্ত গতি!

গাড়ি মানে গতি, আর গতি মানেই জীবন। কচ্ছপগতির জীবন কার ভালো লাগে বলুন? জীবনকে আরও সচল করতে দরকার একটি গাড়ি। তা যদি হয় স্বপ্নের গাড়ি, তাহলে তো কথাই নেই। টাকা জমিয়ে কী করবেন? কিনে ফেলুন একটি গাড়ি। গাড়ি এখন শুধু প্রয়োজনীয়ই নয়, বরং গতির সাথে ফ্যাশনেবলও বটে।

115হলিউডের মারদাঙ্গা চলচ্চিত্র ‘নিড ফর স্পিড’  কিংবা ‘ফাস্ট এ্যান্ড ফিউরিয়াস’ সিরিজে অত্যাধুনিক যে গাড়িগুলো দেখানো হয়েছিলো তার মূল্য নেহাত কম নয়। রেসিং গতির এই গাড়িগুলো বিশ্বের সবচেয়ে দামি গাড়ির তালিকায় পড়ে। তবে স্বপ্ন দেখতে সমস্যা কী? বলা তো যায় না, ভাগ্যে থাকলে এমন একটি গাড়ির মালিক আপনিও হয়ে যেতে পারেন।

দেখে নিন বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির নামিদামি ১০টি গাড়ির বহর

১. মেব্যাক এক্সেলেরো

টুইন টারবো ভি১২ ইঞ্জিন বিশিষ্ট এই গাড়িটির কার্যক্ষমতা ৭০০ হর্সপাওয়ার (৫২২ কিলোওয়াট)। প্রায় ২৭০০ কেজি ওজনের গাড়িটি দুই দরজা বিশিষ্ট। গাড়িটি তৈরী করেছে জার্মানির মেব্যাক কোম্পানি, দাম ৮০ লাখ ডলার ।

২. লাম্বোরঘিনি ভেনেনো

এল ৫৩৯ ভি১২  ইঞ্জিন বিশিষ্ট রেসিংকারটি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৩৫০ কিমি বেগে ছুটতে পারে। স্টাইলিশ এই গাড়িটির ওজন প্রায় ১৭০০ কেজি। খুবই কম তৈরি হয়েছে এই গাড়িটি। গাড়িটির দাম ৪৫ লাখ ডলার। প্রস্ততকারক ইতালির গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লাম্বোরঘিনি।

৩. লাইকান হাইপারস্পোর্ট

ডব্লিউ মোটর্সের তৈরি এ গাড়িটি হলিউডের চলচ্চিত্র ফাস্ট এ্যান্ড ফিউরিয়াস-৭ এ ব্যবহৃত হয়েছে। এর টুইন টার্বো এফ৬ মেশিন গাড়িকে দিয়েছে দারুণ গতি। ১৩৮০ কেজির গাড়িটি ঘণ্টায় ৩৮৫ কিমি বেগে ছুটতে পারে। এর অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য হলো টাইটানিয়াম লেডের হেডলাইট। দাম ৩৪ লাখ ডলার।

৪. বুগাত্তি ভেরিয়ন সুপার স্পোর্টস

ফ্রান্সের বুগাত্তি মোটর্সের এই স্পোর্টস গাড়িটি গতিতে আর সব গাড়ির রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। ঘন্টায় ৪০৮ কিমি গতিতে ছুটতে পারে ১৮৮৮ কেজির এই গাড়িটি। ১০৬ ইঞ্চি লম্বা, ৭৮.৭ ইঞ্চি চওড়া, ৪৫.৬ ইঞ্চি লম্বা গাড়িটির দাম রাখা হয়েছে ২৪ লাখ ডলার।

511৫. লাম্বোরঘিনি রিভেনটন

গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লাম্বোরগিনি মাত্র ২১টি গাড়ি তৈরি করেছিল। ১৬৬৫ কেজি ওজনের এই গাড়িটি ঘন্টায় ২২১ মাইল গতিতে ছুটতে পারে এর ৪০০কিউব ভি১২ ইঞ্জিনের কারণে। এর দাম ২০ লাখ ডলার।

৬. প্যাগানি জোন্ডা

ইতালির প্রতিষ্ঠান প্যাগানি এর তৈরি করা গাড়িটির প্রধান বৈশিষ্ট্য মাত্র ৩.৪ সেকেন্ডে শুন্য থেকে ৬০ কিমি পর্যন্ত গতি তুলতে পারে। ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৩৪৯ কিলোমিটার বেগে ছুটতে পারা এই গাড়িতে ব্যবহার করা হয়েছে এএমজি ভি ১২ ইঞ্জিন। দাম সাড়ে ১৮ লাখ ডলার। গাড়িটি জনপ্রিয়তা পেয়েছে চমৎকার মনকাড়া ডিজাইনের জন্য।

৭.অ্যাস্টন মার্টিন ওয়ান-৭৭

ইংল্যান্ড এর গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাস্টন এই স্পোর্টস গাড়িটি তৈরি করে। ৩.৪ সেকেন্ডে শূন্য থেকে ৬০ কিমি গতি তুলতে পারা গাড়িটি ঘণ্টায় ৩৫৪ কিমি বেগে ছুটতে পারে। এল ভি ১২ ইঞ্জিনের গাড়িটির ওজন ১৬৩০ কেজি। কার্বন মনোফাইবার দিয়ে তৈরি গাড়িটির দাম ১ লাখ ৮৫ হাজার ডলার।

৮. জেনভো এসটি১

ডেনমার্কের প্রতিষ্ঠান জিল্যান্ড কর্তৃক নির্মিত সুপার গাড়িটিতে ব্যবহার করা হয়েছে সুপারচার্জড ৬.৮ এল ভি৮ ইঞ্জিন। ১৬৮৮ কেজির গাড়িটি ঘণ্টায় ৩৭৫ কিমি বেগে ছুটতে পারে। দাম ১ লাখ ৮০ হাজার ডলার।

৯. কোয়েনিগসেগ এ্যাগেরা

সুইডেনের কোয়েনিগসেগ প্রতিষ্ঠানটির নির্মিত এই গাড়ীটিতে আছে ৫.০ এল ভি৮ টুইন টারবোচার্জড ইঞ্জিন। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৩৭৮ কিমি বেগে ছুটলেও চাইলে ৪১৮ কিমি গতিও তোলা যায়, তবে সেক্ষেত্রে জীবনের মায়া করলে চলবে না। কেননা তীব্র গতিতে এর ইলেক্ট্রনিক্স অংশ বিকল হয়ে যায়। ১৪৩৫ কেজি ওজনের এই গাড়িটির মূল্য ১ লাখ ৬০ হাজার ডলার।

১০.  প্যাগানি হুয়েয়রা

প্যাগানি কোম্পানির নির্মিত এই গাড়িটি মাত্র তিন সেকেন্ডে ৬০ কিমি গতি তুলতে সক্ষম। তাই এর নামকরণ করা হয়েছে ‘বাতাসের প্রভু’। ১৩৫০ কেজি ওজনের এই গাড়িটিতে ব্যবহার হয়েছে এএমজি বাই টার্বো এম১৫৮ ভি১২ ইঞ্জিন যা ৫৯৮০ সিসি মার্সিডিজ গাড়িতে ব্যবহার হয়। দাম ১ লাখ ৬০ হাজার ডলার।

অর্থসূচক/মিঠুন/রাশিদ

এই বিভাগের আরো সংবাদ