বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, লিবার্টি এক্সেসরিজের বিরুদ্ধে মামলা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, লিবার্টি এক্সেসরিজের বিরুদ্ধে মামলা

বন্ড সুবিধার অপব্যবহার করে ১৭ কোটি টাকা ফাঁকি দেওয়ার অপরাধে লিবার্টি এক্সেসরিজের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। বৃহস্পতিবার শুল্ক গোয়েন্দার একটি দল কোম্পানির কারখানা পরিদর্শন করে। এসময় তারা ১ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন প্লাস্টিক দানার ঘাটতি দেখতে পান; যা বন্ড লাইসেন্সের সরাসরি শর্ত লঙ্ঘন। হাতেনাতে প্রমাণ পাওয়ায় কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।customs 1

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটিতে প্লাস্টিক দানার ঘাটতি আছে বলে জানতে পারে শুল্ক গোয়েন্দারা। এসবের মধ্যে আছে বিওপিপি-২০০ মেট্রিক টন, পিপি -৬২০ মেট্রিক টন, এলএলডিপিই -৪০০ মেট্রিক টন, এবং এলডিপিই -২৮০ মেট্রিক টন।

এর মাধ্যমে বন্ড লাইসেন্সের শর্তাবলি লঙ্ঘন করে প্রায় ৫ কোটি টাকা শুল্ক ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। এই ঘাটতিজনিত ১৭ কোটি টাকার পণ্য খোলা বাজারে বিক্রয় করা হয়েছে বলে জানিয়েছে গোয়েন্দারা।

বন্ড লাইসেন্সের শর্তানুযায়ী, শুল্কমুক্ত সুবিধার আওতায় বন্ডেড কাঁচামাল আমদানি করা যায়। এই প্রতিষ্ঠানটি গার্মেন্টস এক্সেসরিজ তৈরি করে রপ্তানির উদ্দেশ্যে এসব প্লাস্টিক দানা এনেছিল। আমদানিকৃত কাঁচামাল যথাযথভাবে সংরক্ষণ ও হিসাব রাখা বাধ্যতামূলক হলেও তা করেনি ওই কোম্পানি।

চট্টগ্রামের এই প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘ দিন ধরে বন্ড সুবিধার অপব্যবহার করে অধিক মুনাফা লাভের উদ্দেশ্যে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করে আসছিল। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে গোয়েন্দারা অভিযান চালান।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের উপ পরিচালক এসএম শামিমুর রহমান জানান, প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘ দিন ধরে বন্ড সুবিধার অপব্যবহার করে অধিক মুনাফা লাভের উদ্দেশ্যে বন্ড লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করে স্থানীয় বাজারে পণ্য বিক্রি করে দিচ্ছে।

উল্লেখ্য, উক্ত প্রতিষ্ঠানটি এর আগেও প্রায় ৩৪ কোটি টাকার পণ্যের উপর ১২ কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে। ঘাটতির এই ১৫০০ মেট্রিক টন পিপি দানা ঢাকা এবং চট্টগ্রামে বিভিন্ন মার্কেটের খোলা বাজারে বিক্রয় করা হয়েছে। অনিয়মকৃত এই পণ্যের শুল্কসহ মোট মূল্য প্রায় ১৭ কোটি টাকা। বন্ড সুবিধার অপব্যবহারের ফলে দেশের শিল্পায়ন যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তেমনি সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি বহদ্দারহাট, চান্দগাঁও, চট্টগ্রামে অবস্থিত বলে জানা গেছে।

অর্থসূচক/সুমন/রাশিদ/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ