‘স্ত্রীর নগ্ন ছবি জেতাতে পারে ট্রাম্পকে’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘স্ত্রীর নগ্ন ছবি জেতাতে পারে ট্রাম্পকে’

মিশেল ওবামার বক্তব্য ‘নকল’ করে আগেই খবরের শিরোনাম হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্টপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া। গতকাল নিউ ইয়র্ক পোস্টে নগ্ন ছবি ফাঁস আবারও আলোচনায় তুলল এই মডেলকে। তবে এসবে রিপাবলিকান দলের নেতারা ক্ষুব্দ নন, দলের এক ক্যাম্পেইন উপদেষ্টা বলছেন, ফাঁস হওয়া মেলানিয়া ট্রাম্পের নগ্ন ছবি দলকে জেতাতে সাহায্য করতে পারে।melania-1

যুক্তি হিসেবে তিনি তুলে ধরেন, এই ছবি মানব দেহের শৈল্পিক উদযাপন। আমি মনে করি, এই ছবি ট্রাম্পকে সমকামীদের ভোট এনে দিতে সাহায্য করবে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের ‘সিঙ্গল’ পুরুষদের নজর কাড়বে।ফলে তারাও ট্রাম্পকে সমর্থন করবেন। খবর টেলিগ্রাফ।

খবরে বলা হয়, মেলানিয়ার এসব ছবি ২০ বছর আগের। তখন মেলানিয়া ট্রাম্পের বউ ছিলেন না। মেলানিয়া ১৯৯৫ সালে ম্যানহাটনে এক মডেলিং সেশনের সময় ছবিগুলো তোলেন। এগুলো ফ্রান্সের ম্যাক্স সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়। এটি পুরুষদের সাময়িকী।

দ্য নিউইয়র্ক পোস্টের তথ্য অনুযায়ী, ছবিগুলো তোলার সময় স্লোভেনিয়ার বংশোদ্ভূত মডেল মেলানিয়ার বয়স ছিল ২৫ বছর। তিনি পরিচিত ছিলেন মেলানিয়া কে নামে। ছবি তুলেছিলেন ফ্রান্সের আলোকচিত্রী অ্যালি আলেকজান্ডার দ্য বাসিভিল।

ওই ছবির বিষয়ে ট্রাম্পের বক্তব্যও পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, ইউরোপীয় সাময়িকীর জন্য মেলানিয়ার এসব ছবি তোলা হয়। ইউরোপে এ ধরনের ছবি ফ্যাশনে বহুল ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

ট্রাম্প বলেন, মেলানিয়া একজন সফল মডেল। অনেকে ফটোশুট করেছেন। বড় বড় সাময়িকীর প্রচ্ছদে তাঁর ছবি ব্যবহৃত হয়েছে।

২০০৫ সালে ফ্লোরিডায় একটি সমুদ্রসৈকতের রিসোর্টে ট্রাম্প-মেলানিয়া বিয়ে করেন।

তবে তার আগে মেলানিয়ার মতো আরও দুই মডেলকে বিয়ে করেছিলেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের নিজের একটি মডেলিং প্রতিষ্ঠান আছে। এর নাম ট্রাম্প মডেল ম্যানেজমেন্ট।

মেলানিয়ার নগ্ন ছবি তুলেছেন যে আলোকচিত্রী সেই অ্যালি আলেকজান্ডার দ্য বাসিভিল এখন মডেলিং দুনিয়ার বড় সমালোচক। তিনি বলেছেন, আমি এই জগতটাকে ঘৃণা করি। তবে মেলানিয়ার ছবির পক্ষ নিয়ে তিনি বলেন, এটা আসলে নগ্নতা নয়, বরং নারী শরীরের ‘সেলিব্রেশন’।

এই বিভাগের আরো সংবাদ