বিশ্ববিদ্যালয়ে ই-কমার্স কোর্স চালুর দাবি ই-ক্যাবের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বিশ্ববিদ্যালয়ে ই-কমার্স কোর্স চালুর দাবি ই-ক্যাবের

ই-কমার্স সেক্টরে দক্ষ জনশক্তি বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ই-কমার্স বিষয়ক কোর্স চালু করার দাবি জানিয়েছে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। আজ শনিবার দেশের প্রথম অনলাইন বিজনেস নিউজ পোর্টাল “অর্থসূচক” আয়োজিত  ই-কমার্স: সম্ভাবনা, চ্যালেঞ্জ ও করণীয় বিষয়ক আলোচনা সভায় এ দাবি করেন ই-কমার্স সেক্টরের উদ্যোক্তারা।

অর্থসূচকের সম্পাদক জিয়াউর রহমান এ আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন অর্থসূচকের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কামরুন নাহার শরমিন, বিভিন্ন ই-কমার্স কোম্পানির উদ্যোক্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ।

অর্থসূচক আয়োজিত  ‘ই-কমার্স: সম্ভাবনা, চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ বিষয়ক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন ই-ক্যাবের সভাপতি রাজিব আহমেদ। ছবি তুলেছেন আলোকচিত্রী মহুবার রহমান।

অর্থসূচক আয়োজিত ‘ই-কমার্স: সম্ভাবনা, চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ বিষয়ক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন ই-ক্যাবের সভাপতি রাজিব আহমেদ। ছবি তুলেছেন আলোকচিত্রী মহুবার রহমান।

ই-ক্যাব সভাপতি রাজিব আহমেদ বলেন, ই-কমার্স ব্যবসায়ের বিকাশ ঘটাতে প্রথমেই দরকার দক্ষ জনশক্তি। যেটা আমাদের দেশে নেই। দেশের যেসব খাত অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছে, সেই খাতগুলোর মধ্যম পর্যায়ের ব্যবস্থাপকরা বিদেশি। তাই দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ই-কর্মাস বিষয়ক কোর্স চালু হলে দক্ষ জনশক্তি দেশেই তৈরি করা সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, আগামী ২০১৭ সালেও যদি শিক্ষা ব্যবস্থায় ই-কমার্স কোর্স চালু করা হয়। তাতেও আমরা ২০২১ সালের আগে ই-কমার্স সেক্টরে কোনো গ্রাজুয়েট পাবো না।

সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা এবং সহযোগিতা পেলে ই-কর্মাস দেশের অর্থনীতিতে বড় ভূমিকা রাখবে ও দেশের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি বাড়াতে সাহায্য করবে বলে মনে করেন আলোচনায় উপস্থিত বক্তারা। তারা বলেন, ই-কর্মাস এখনো বাংলাদেশে তেমন প্রচারিত ও প্রসারিত হয়নি। মানুষের মাঝে এর প্রচারণা চালাতে হবে।

আলোচনায় সভায় বক্তব্য রাখছেন ই-কমার্স কোম্পানি রাইট চয়েজের উদ্যোক্তা মাহবুব মজুমদার। ছবি তুলেছেন মহুবার রহমান।

আলোচনায় সভায় বক্তব্য রাখছেন ই-কমার্স কোম্পানি রাইট চয়েজের উদ্যোক্তা মাহবুব মজুমদার। ছবি তুলেছেন মহুবার রহমান।

দেশের ই-কমার্স সেক্টরে ই-ক্যাবের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে রাইট চয়েজের মাহবুব মজুমদার বলেন,  ই-কমার্স সম্পর্কে অনেকের ভুল ধারণা রয়েছে। এখানে এসে মানুষ প্রতারণার শিকার হয়- এমন ধারণা ঠিক নয়। কিছু সমস্যা রয়েছে। তবে এ থেকে উত্তোরণে মিডিয়াকে এগিয়ে আসতে হবে। আমরা গণমাধ্যমের সহযোগিতা চাই।

‌ই-কমার্সে তরুণদের সম্ভাবনা সম্পর্কে আলোচনা সভায় শপিবাজ ডটকমের আবুল খায়ের বলেন, ই-কমার্স ব্যবসায় তরুণদের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। কেননা, ভার্চুয়াল মার্কেট সম্পর্কে তাদের ধারণা বেশি।

সারপ্রাইজ ডায়েরি ডটকমের সাদিদ খন্দকার জানান, তিনি দেশের ঐতিহ্যবাহী শিল্প হস্তশিল্প নিয়ে কাজ করছে। তিনি ই-কমার্সের মাধ্যমে দেশের ঐতিহ্যবাহী এ শিল্প সারাবিশ্বে ছড়িয়ে দিতে চান।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন দিন-রাত্রী ডটকমের সাহাব উদ্দীন, কিনলে ডটকমের এম. এম মৃধা সোহেল, দি স্টার বিডির মিঠু কামাল, ওয়ালেটমিক্সের জাহাঙ্গীর এ শোভন, ডিজিটাল হাবের সাঈদ রহমান, নুসরাটেকের নিয়ামত উল্লাহ, ই-কম ভয়েসের আফজাল হোসাইন, শপিবাজডটকমের আবুল খায়ের প্রমুখ।

অর্থসূচক/মুন্নাফ/মেহেদী/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ