আরও ৩৬টি দেশকে ই-ভিসা দিচ্ছে ভারত, নেই বাংলাদেশ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আরও ৩৬টি দেশকে ই-ভিসা দিচ্ছে ভারত, নেই বাংলাদেশ

ব্যাপক সাফল্যের জেরে আরও ৩৬টি দেশকে ই-ভিসা পরিষেবার আওতায় আনার পরিকল্পনা করছে ভারত। তবে এবারও দেশটির এই পরিষেবা থেকে বঞ্চিত থাকতে হচ্ছে বাংলাদেশকে।

আজ বুধবার টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

Jaipur_Lakepalace

ভারতের জয়পুরের লেক প্যালেস

প্রতিবেদনে বলা হয়, ই-টুরিস্ট ভিসা প্রকল্পে ব্যাপক সাফল্য পাচ্ছে ভারত। সেই সুবাদে আরও ৩৬টি দেশকে অনলাইন ভিসা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে দেশটির পর্যটন মন্ত্রণালয়।

ইতোমধ্যে ই-ভিসা দিতে যাওয়া দেশগুলোর একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছে ভারত। তবে দীর্ঘদিন ধরে এই সুবিধা আশা করলেও প্রতিবেশী দেশটির সংক্ষিপ্ত এই তালিকায় স্থান পায়নি বাংলাদেশ। নতুন করে ভারতের ই-ভিসা পরিষেবা পেতে যাওয়া দেশগুলোর সংক্ষিপ্ত তালিকায় রয়েছে-ইরান, ইতালি, মিশর, নাইজেরিয়া, তুরস্ক, ইথিওপিয়া, কাতার, বাহরাইন, সৌদি আরব, মালদ্বীপ, কাজাখস্তান ও মরক্কো।

সূত্র জানায়, অনুমোদনের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আর সেটি গৃহীত হলে এই ৩৬টিসহ বিশ্বের ১৮৬টি দেশের নাগরিক অনলাইন ভিসার মাধ্যমে ভারতে ভ্রমণে সক্ষম হবেন।

২০১৩ সালে সর্বপ্রথম অনলাইন ভিসা প্রকল্প চালু করে ভারত। সেবারও বাংলাদেশকে ই-ভিসা প্রদান করেনি দেশটি। তারপরও আশা জিইয়ে থাকে বাংলাদেশিদের। কিন্তু এরপর এই প্রকল্প আরও বিস্তার লাভ করলেও লাল-সবুজ পতাকার দেশটির বহুকাঙ্খিত আশা পূরণ হয়নি। এবারও হলো না।

পর্যটন মন্ত্রণালয় প্রকাশিত এক পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ২০১৬ সালের জানুয়ারি-জুন মেয়াদে মোট ৪ লাখ ৭১ হাজার ৯০৯ জন পর্যটক ই-টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে ভারতে পৌঁছেছেন। যা গত বছর একই সময়ে চেয়ে ২৭৩.৯ শতাংশ বেশি।

এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ই-ভিসা পরিষেবা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। এ তালিকায় এর পরের স্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্যের নাগরিক এবং তার পরের স্থানে রয়েছে চীনের নাগরিকরা।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ই-ভিসার আওতায় ভারতে ভ্রমণে আসার সময় বিদেশিরা সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করেন দিল্লি বিমানবন্দর। এর পরে তাদের পছন্দ মুম্বাই বিমানবন্দর।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ