কেরালার নিখোঁজ তরুণেরা আইএসে যোগ দিয়েছে!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

কেরালার নিখোঁজ তরুণেরা আইএসে যোগ দিয়েছে!

গত এক মাসে ভারতের কেরেলা রাজ্যের নিখোঁজ তরুণ-তরুণীরা ইসলামী জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দিয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা গেছে, গত এক মাসে কেরেলার ১৭ জন মুসলিম তরুণ-তরুণী নিখোঁজ হয়েছে।isis_image

খবরে বলা হয়েছে, ওই সকল তরুণ-তরুণীদের পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা মনে করছেন তারা আইএস নামক সংগঠনে যোগ দিয়ে থাকতে পারে।

এনডিটিভির এক খবরে নিখোঁজ নিমিশা নামের এক তরুণীর কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

জানা গেছে নিমিশার বয়স ২৫ বছর। গত এক মাস আগে সে হঠাৎ বাড়ি থেকে চলে যায়। এর পরে তার আর খোঁজ পাওয়া যায়নি।

নিমশার খোজ পেতে তার মা বিন্দু রাজ্যটির মূখ্যমন্ত্রী পিনারাই ভিজায়ানের  সাথে দেখো করে সাহায্য চেয়েছেন। এনডিটিভিকে বিন্দু  জানিয়েছেন, মূখ্যমন্ত্রী তাকে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন।

বিন্দুর ভাষ্য মতে, তার মেয়ে সে সময় গর্ভবতী ছিল। গত মে মাসের ১৬ তারিখ সে তার স্বামীর সাথে বেরাতে আসেন। কেরালায় আসায় তার দুইদিন পর তার কাছে নিমিশার একটি ফোন আসে, নিমিশা তাকে জানায় সে ব্যবসার কাজে শ্রীলংকা যাচ্ছে।

এর পরে নিমিশার সঙ্গে ফোনে একাধিকবার কথা হলেও সে কখনও তাকে জানায়নি যে কোথা থেকে কথা বলছে।

বিন্দু জানান, নিমিশা কাসারগোদ নামে একটি ডেন্টাল হাসপাতালে শেষবর্ষের ছাত্রী ছিল। ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে একজন ৩২ বছর বয়সী খ্রীস্টানকে বিয়ে করে। বিয়ের কিছুদিন পর তারা উভয়েই ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে।

জানা গেছে, কাসারগোদে এমন আরও পাচঁটি পরিবার তাদের সন্তান বা স্বজন নিখোঁজ হওয়ার  অভিযোগ করেছে।

কাছাকাছি বয়সের এই তরুণ-তরুণীদের নিরুদ্দেশ হয়ে যাওয়া, তাদের ইসলামের প্রতি আসক্তি, গোপন স্থান থেকে যোগাযোগসহ আরও কয়েকটি কারণে তাদের নয়ে নানা মতামত দিয়েছে স্বজনেরা।

তারা মনে করছে তাদের নিখোঁজ স্বজনেরা আইএসে যোগ দিয়ে থাকতে পারে।

তবে রাজ্যের কংগ্রেস নেতা রামেশ চেন্নিথালা বলেন, এটা বলা যাচ্ছেনা যে এদের সবাই আইএসএ যোগ দিয়েছে। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

তিন্নি/টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ