ফাঁকা হচ্ছে ঢাকা ...
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ফাঁকা হচ্ছে ঢাকা …

এবার ঈদুল ফিতরের সাধারণ ছুটি ৫, ৬ ও ৭ জুলাই। এর পর ৮ ও ৯ জুলাই শুক্র ও শনিবার হওয়ায় টানা ৫ দিনের ছুটি পাওয়ার কথা ছিল সরকারি কর্মকর্তারা। তাই লম্বা ছুটি পাওয়ার আমেজে ছিলেন তারা। সেই আনন্দকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আগামীকাল শনিবার পবিত্র লাইলাতুল বরাত হওয়ায় পরদিন অর্থাৎ রোববার সরকারি ছুটি। এরপর আগামী সপ্তাহে শুধু সোমবার অফিস খোলা থাকলেও নির্বাহী ক্ষমতাবলে ওই দিন ছুটি ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সব মিলিয়ে আজ শুক্রবার থেকে টানা ৯ দিনের ছুটি পাচ্ছেন সব পর্যায়ের সরকারি কর্মীরা।

Train Station4ঈদের এই দীর্ঘ ছুটিতে অনেকটা স্বস্তি নিয়েই স্বজনদের সঙ্গে ঈদ করতে বাড়ি ফিরছেন রাজধানীর বাসিন্দারা। গতকাল বৃহস্পতিবার অফিস শেষেই ঢাকা ছাড়তে শুরু করেছেন তারা। গতকাল রাত থেকে কমলাপুর রেল স্টেশন, বিমানবন্দর রেল স্টেশন, গাবতলী, মহাখালী, সায়েদাবাদ, সদরঘাটে ঈদের আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে।

আজ সকালেও রাজধানীর বাস স্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট ও রেল স্টেশনে ঘুরমুখো মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। তাদের চোখে-মুখে আনন্দের ছাপ। তবে বাস স্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট ও রেল স্টেশনে বাড়তি কোনো চাপ নেই।

পরিবহন মালিকরা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা ছেড়েছেন অনেকেই। তাই আজ শুক্রবারও অনেকেই ঢাকা ছাড়ছেন। তবে তেমন বাড়তি চাপ নেই। কয়েকদিন পর গার্মেন্টস কারখানা ছুটি হলে চাপ একটু বাড়তে পারে।

রাজধানীতে একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকরি করেন ফিরোজ আলম। তার স্ত্রী এবং সন্তান থাকে নোয়াখালীতে। গতকাল বৃহস্পতিবার অফিস শেষ করেই বাড়ি ফিরেছেন তিনি। মোবাইল ফোনে তার সঙ্গে কথা বললে অর্থসূচকে তিনি বলেন, এবার বাড়ি ফিরতে কোনো ঝামেলা হয়নি। অনেকটা আগেভাগে এবং আরাম করেই বাড়ি ফিরেছি। টানা ৯ দিন ছুটি পাওয়ায় এবার স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে সময়টা ভালোই কাটবে।

কমলাপুর রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানায়, আজ শুক্রবার সঠিক সময়ে ট্রেন এসেছে এবং ছেড়ে গেছে। তাই যাত্রীদের ভোগান্তি হচ্ছে না। এছাড়া অন্যান্যবারের মতো তেমন ভিড়ও নেই।

Train Station3এদিকে ঈদের ছুটিতে ফাঁকা হতে শুরু করেছে রাজধানী ঢাকা। রাজধানীর বিপণি বিতান ও শপিং মলগুলোতে ভিড় থাকলেও পথে নেই দীর্ঘ যানজট। রাজধানীর গুলিস্তান ,মগবাজার, ফার্মগেটসহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু পয়েন্ট ছাড়া অধিকাংশ এলাকায় যানবাহনের তেমন চাপ দেখা যায়নি। তবে বাড়ি ফিরতে বিভিন্ন বাস টার্মিনাল, রেল স্টেশন ও লঞ্চ ঘাটের দিকে ছুটছেন অনেকেই।

প্রতি বছর ঈদের সময় ঢাকা প্রায় ফাঁকা থাকে। ওই সময় তেমন যানজটও দেখা যায় না। ঢাকা ফাঁকা হতে থাকায় কিছুদিন স্বস্তিতে থাকার আশায় দিন গুণছেন রাজধানীর অন্যান্য বাসিন্দারা।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শোহান জানান, আমরা যারা ঢাকায় থাকি। তারা ঈদের সময় এক অন্যরকম ঢাকাকে খুঁজে পাই। কেননা, এসময় ঢাকার পথঘাটে নির্বিঘ্নে চলাচল করা যায়। কোথাও কোনো যানজট থাকে না। এটাই ঢাকায় ঘুরে বেড়ানোর উপযুক্ত সময়। এবার ঈদে বেশি ছুটি থাকায় সময়টা ভালোই কাটবে।

ঈদের আগে সরকারি চাকরিজীবীদের শেষ কর্মদিবস ছিল গতকাল ৩০ জুন বৃহস্পতিবার। ১ ও ২ জুলাই যথাক্রমে শুক্র ও শনিবার। ৩ জুলাই পবিত্র লাইলাতুল কদরের ছুটি। ৫ থেকে ৭ জুলাই ঈদের ছুটি। আর ৪ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর নির্বাহী ক্ষমতাবলে ছুটি। এর পরের দুই দিন শুক্র-শনিবারের বন্ধ। সে হিসাবে ঈদের পর আগামী ১০ জুলাই প্রথম অফিস করবেন সরকারি চাকরিজীবীরা।

অর্থসূচক/মেহেদী/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ