কোথায় পাবেন বিনামূল্যে নতুন টাকা?
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

কোথায় পাবেন বিনামূল্যে নতুন টাকা?

ঈদ উপলক্ষে প্রতিবারের মতো এবারও নতুন টাকার পর্যাপ্ত মজুদ রেখেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গ্রাহকদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে এবার নতুন টাকা মজুদ রাখা হয়েছে ৩৫ হাজার কোটি টাকা। কয়েন থেকে শুরু করে দেশে প্রচলিত সবগুলো মুদ্রায় এ টাকা ছাড়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ হাজার কোটি টাকা বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে এবং ২০ হাজার কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের বিভিন্ন শাখা থেকে দেওয়া হচ্ছে। গত ১৬ জুন থেকে নতুন টাকা বিতরণ শুরু হয়েছে। চলবে ৪ জুলাই পর্যন্ত।

যেখানে পাবেন নতুন টাকা:

ঢাকার মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ভবনের নিচ তলাসহ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দেশব্যপী ৯টি শাখা থেকে বাংলাদেশের যেকোনো নাগরিক নতুন টাকা সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়া বাংলাদেশে ব্যাংক অনুমোদিত ২০টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের নির্ধারিত শাখা থেকেও পুরানো টাকা দিয়ে নতুন টাকা নিতে পারবেন সাধারণ গ্রাহকরা।

ছবি সংগৃহীত

ঈদের আগে এভাবেই নতুন টাকার পসরা সাজিয়ে বসে বিক্রেতারা- ছবি সংগৃহীত

এজন্য গ্রাহককে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে টাকা নিতে হবে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগের এক কর্মকর্তা অর্থসূচককে জানান, ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী একজন গ্রাহক বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে হাতের ছাপ দিয়ে এই টাকা নিতে পারবেন। তবে তিনি যদি দ্বিতীয়বার টাকা নিতে চান তবে প্রথমবার টাকা নেওয়ার পর ৭ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ৭ কার্যদিবস পর পুনরায় টাকা উঠাতে পারবে। টাকার অংকে কোনো পরিবর্তন হবে না।

বাণিজ্যিক ব্যাকগুলো হলো- ন্যাশনাল ব্যাংকের যাত্রাবাড়ি শাখা, জনতা ব্যাংকের আব্দুল গণি রোড শাখা, অগ্রণী ব্যাংকের এলিফ্যান্ট রোড শাখা, দি সিটি ব্যাংকের মিরপুর শাখা, সাউথইস্ট ব্যাংকের কারওয়ান বাজার শাখা, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের বসুন্ধরা সিটি পান্থপথ শাখা, উত্তরা ব্যাংকের চকবাজার শাখা, সোনালী ব্যাংকের রমনা করপোরেট শাখা, ঢাকা ব্যাংকের উত্তরা শাখা, আইএফআইসি ব্যাংকের গুলশান শাখা, রূপালী ব্যাংকের মহাখালী শাখা, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের মোহাম্মদপুর শাখা, জনতা ব্যাংকের নিউমার্কেট শাখা, পুবালী ব্যাংকের সদর ঘাট শাখা, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের মালিবাগ শাখা, ওয়ান ব্যাংকের বাসবো শাখা, ইসলামী ব্যাংকের শ্যামলী শাখা, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের দক্ষিণখান শাখা, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের বনানী শাখা, ব্যাংক এশিয়ার ধানমণ্ডি শাখা।

এবছর ব্যাংক থেকে একজন গ্রাহক একবারে ৫০ টাকা, ২০ টাকা, ১০ টাকা, ৫ টাকা ও ২ টাকা মূল্যমানের ১ প্যাকেট করে মোট ৮ হাজার ৭শ টাকা পর্যন্ত নতুন টাকা সংগ্রহ করতে পারবেন। এর নিচে বা উপরে নিতে পারবেন না।

যাদের এতো টাকা নেওয়ার সামর্থ নেই বা আরও কম টাকার প্রয়োজন তাদেরকে বাইরে থেকে দালালদের কাছ থেকে নির্ধারিত কমিশন দিয়ে টাকা সংগ্রহ করতে হবে।

সাধারণত ঢাকায় বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান ফটকের পাশে সেনাকল্যাণ সংস্থা ভবনের সামনের ফুটপাত, গুলিস্তানের ফুটপাত এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের পুরান ঢাকা শাখা সংলগ্ন ফুটপাতে নতুন টাকার সবচেয়ে বেশি কেনা-বেচা হয়। সেনাকল্যাণ সংস্থা ভবনের সামনের ফুটপাত টাকা বেচা-কেনার সবচেয়ে বড় বাজার। এসব জায়গা থেকে নতুন টাকা সংগ্রহ করতে চাইলে টাকা বিক্রেতাদের প্রতি হাজারে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত লাভ দিতে হবে।

অর্থসূচক/শাফায়াত/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ