বিপরীত স্রোতে স্বর্ণবাজার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বিপরীত স্রোতে স্বর্ণবাজার

ব্রেক্সিট ঝড়ে যখন বিশ্ব অর্থনীতি আতঙ্কে, তখন পেট ভরছে স্বর্ণ খাতের। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের পদত্যাগের সিদ্ধান্তে উল্টো চাঙ্গা হচ্ছে এ পণ্যের বাজার। জ্বালানি বা অন্যান্য খাতের চেয়ে এ খাতে বিনিয়োগকেই এখন নিরাপদ মনে করছেন বিনিয়োগকারী ও বাজার বিশ্লেষকরা। আর তাতেই ফুলছে এ বাজার।

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম টেলিগ্রাফের খবর অনুযায়ী, গণভোটে ব্রিটেনের পক্ষে ভোট পড়ার পর সর্বশেষ কার্যদিবসে বাজারে স্বর্ণের দাম গত দুই বছরে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায়। এদিন আউন্স প্রতি স্বর্ণের দাম বেড়ে ১ হাজার ৩৬০ ডলার পর্যন্ত হয়। যা গত ২০১৪ সালে মার্চের পর সবচেয়ে বেশি। ভোটের আগের দিন এই দর নেমেছিল ১ হাজার ২৫৫ ডলার পর্যন্ত। তবে সর্বশেষ শুক্রবার বাজার অবস্থান করে আউন্সপ্রতি ১ হাজার ৩১৯ ডলারে।

ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগলের তথ্য মতে, ব্রেক্সিট সিদ্ধান্তের পর বিনিয়োগকারীরা নিরাপদ খাত হিসেবেই স্বর্ণের দিকে মোড় নেয়। এদিন ভোরের দিকে গুগলে ‘বাই গোল্ড’ শিরোনামে সার্চের পরিমাণ ৫০০ শতাংশ বেড়ে যায়। পাউন্ডের মান এদিন গত ৩ দশকের মধ্যে সর্বনিম্নে অবস্থান করে।

এদিকে, ব্রিটেনের ইইউ ছাড়ার সিদ্ধান্তে ও ডেভিড ক্যামেরনের পদত্যাগের ঘোষণায় ইউরোপ ও এশিয়ায় পুঁজিবাজার নাজেহাল হয়ে পড়ে। এদিন লেনদেন শুরুতেই এফটিএসই ১০০ সূচকের পতন হয় ৮.৭ শতাংশ।

এদিন আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দামও ব্যারেলে ৬ শতাংশ কমে বিক্রি হয়।

প্রসঙ্গত, কদিন আগেই ডেনমার্ক ভিত্তিক স্যাক্সো ব্যাংকের কমোডিটি স্ট্র্যাটেজি বিভাগের প্রধান ওলে হ্যানসেন বেক্সিট সিদ্ধান্তে স্বর্ণবাজারে ব্যাপক উল্লম্ফন ঘটতে পারে বলে জানান। তিনি বলেন, ব্রিটেনের ব্রেক্সিট সিদ্ধান্তে পণ্যটির দর আউন্সপ্রতি বেড়ে ধাক্কা দিতে পারে ১৪০০ ডলারে (এক আউন্স=২.৪৩ ভরি)। যা বর্তমান দামের চেয়ে প্রায় ১০০ ডলার বেশি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ