শুভ জন্মদিন খুদে জাদুকর
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

শুভ জন্মদিন খুদে জাদুকর

আধুনিক ফুটবলের জাদুকর লিওনেল মেসির জন্মদিন আজ ২৪ জুন, শুক্রবার। এদিন ২৯ বছরে পা রাখলেন বার্সালোনার এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। বিশ্বে অসংখ্য ভক্ত- অনুরাগী রয়েছে মেসির। জন্মদিনে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাদের ভালোবাসার শুভেচ্ছায় সিক্ত তিনি।

আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। ছবি সংগৃহীত

আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। ছবি সংগৃহীত

১৯৮৭ সালের ২৪ জুন আর্জেন্টিনার রোজারিওতে জন্মগ্রহণ করেন লিওনেল মেসি। তার বাবা হোর্হে হোরাসিও মেসি ছিলেন একটি ইস্পাত কারখানার শ্রমিক। মা সেলিয়া মারিয়া কুচ্চিত্তিনি ছিলেন খণ্ডকালীন পরিচ্ছন্নতা কর্মী। তার পৈতৃক পরিবারের আদি নিবাস ইতালির আকোনা শহরে। তার পূর্বপুরুষদের একজন অ্যাঞ্জেলো মেসি ১৮৮৩ সালে আর্জেন্টিনায় এসে বসতি গাঁড়েন। মেসির রয়েছে দুই বড় ভাই এবং এক ছোট বোন।

মাত্র পাঁচ বছর বয়সে স্থানীয় ক্লাব গ্রান্দোলির হয়ে ফুটবল খেলা শুরু করেন মেসি। এ ক্লাবে কোচ ছিলেন তার বাবা হোর্হে মেসি।

১৯৯৫ সালে রোজারিওভিত্তিক ক্লাব নিওয়েল’স ওল্ড বয়েজে যোগ দেন। তিনি একটি স্থানীয় যুব শক্তিঘরের সদস্য হয়ে পড়েন। যারা পরবর্তী ৪ বছরে একটি মাত্র খেলায় পরাজিত হয় এবং স্থানীয়ভাবে ‘দ্য মেশিন অফ ‘৮৭” (The machine of ’87) নামে পরিচিত হয়ে উঠে। তাদেরকে এই নামে অভিহিত করার কারণ, তাদের জন্ম সাল: ১৯৮৭।

১১ বছর বয়সে মেসির গ্রোথ হরমোনের (growth hormone) সমস্যা ধরা পড়ে। স্থানীয় ক্লাব রিভার প্লেট আগ্রহ দেখালেও সেসময় ক্লাবটি মেসির চিকিৎসা খরচ বহন করতে অপারগ ছিল। এ চিকিৎসার জন্যে প্রতি মাসে প্রয়োজন ছিল ৯০০ মার্কিন ডলার।

বার্সালোনার তৎকালীন ক্রীড়া পরিচালক কার্লেস রেক্সাচ মেসির প্রতিভা সম্পর্কে জানতে পারেন। তিনি মেসির খেলা দেখে মুগ্ধ হন। ফলে বার্সালোনা মেসির চিকিৎসার সমস্ত ব্যয়ভার বহন করতে রাজি হয়। এরপর তাৎক্ষণিকভাবে হাতের কাছে কোনো কাগজ না পেয়ে একটি ন্যাপকিন পেপারে মেসির বাবার সাথে চুক্তি সাক্ষর করেন তিনি। তাররপর মেসি এবং তার বাবা বার্সালোনায় পাড়ি জমান।

ক্লাব ফুটবলে বার্সার সর্বকালের সেরা ফুটবলার মেসি। বার্সার সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতাও তিনি। বার্সালোনার হয়ে ৮টি লা লিগা, ৪টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, ৩টি ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ, ৩টি উয়েফা সুপার কাপ জিতেছেন খুদে জাদুকর।

পাঁচবার ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের খেতাব জিতেছেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনার হয়ে জিতেছেন অলিম্পিকে স্বর্ণ। দেশের হয়ে অনুর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপও জিতেছেন তিনি। আর্জেন্টিনার শীর্ষ গোলদাতাও হয়েছেন তিনি।

ক্যারিয়ারে ৬৪৩টি ম্যাচ খেলেছেন লিওনেল মেসি। করেছেন ৫০৮টি গোল। আর সহায়তা করেছেন ২১৩টি গোলে। ক্লাবের হয়ে মোট ট্রফি জিতেছেন ২৮টি।

তবে জাতীয় দলের হয়ে এখনো বড় কোনো শিরোপা জিততে পারেননি এ ফুটবল জাদুকর। তবে একক প্রচেষ্টায় ২০১৪ সালে আর্জেন্টিনাকে ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনালে তুলেন তিনি। এরপর গত বছর কোপাতেও দলকে ফাইনালে তুলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে চলছে কোপার শতবর্ষী টুর্নামেন্ট। সেখানে আগামী ২৭ তারিখে ফাইনালে চিলির বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা।  দেশের হয়ে সর্বকালের সেরা হতে মেসির প্রয়োজন এই ট্রফিটি। এখন দেখার বিষয় মেসির হাতে সেই শিরোপা  উঠে কি না।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ