ডিএসইর এমডি হতে পারেন মাজেদুর রহমান
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পুঁজিবাজার

ডিএসইর এমডি হতে পারেন মাজেদুর রহমান

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যাবস্থাপনা পরিচালক পদে নিয়োগ পেতে পারেন প্রিমিয়ার ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান। রোববার ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদের সভায় প্রাথমিকভাবে কে এ এম মাজেদুর রহমানের নাম ঠিক করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এখন কে এ এম মাজেদুর রহমানের সঙ্গে আবার বসবে ডিএসই কর্তৃপক্ষ। ওই সভায় তার বেতন ও আনুসাঙ্গিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। আলোচনা ফলপ্রসু হলে তার নাম নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) জমা দিবে ডিএসই কর্তৃপক্ষ। বিএসইসি তার বিষয়ে খোঁজ-খবর নিবে। কোনো বিষয়ে সমস্যা না থাকলে তাকে ডিএসইর ব্যাবস্থাপনা পরিচালক হিসাবে নিয়োগ অনুমোদন করবে বিএসইসি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদের একজন সদস্য অর্থসূচককে বলেন,আজকের সভায় ডিএসইর এমডির বিষয়ে প্রাথমিক একটি সিদ্ধান্ত হয়েছে।এখন কর্তৃপক্ষ তার সঙ্গে বসে কিছু বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে। সব কিছু মিলে গেলে তার নাম বিএসইতে পাঠানো হবে।বিএসইসির অনুমোদন স্বাপেক্ষে তিনি ডিএসইর এমডি হিসাবে যোগ দিবেন।

এদিকে ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ১৩ এপ্রিল ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসাবে মেয়াদ শেষ করেন অধ্যাপক স্বপন কুমার বালা। ২০১৩ সালের ১৫ এপ্রিল ৩ বছরের জন্য সিইও (প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা) ডিএসইতে যোগ দেন তিনি। সুযোগ থাকলেও মেয়াদ শেষে পুনরায় এমডি হওয়ার বিষয়ে তার অনীহা থাকায় ডিএসই এমডির সন্ধানে নামে। প্রথম দফায় এপ্রিল ও দ্বিতীয় দফায় মে মাসে এমডির জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। দুই বারে প্রায় ১৮ জন আবেদন করে ডিএসইর এমডি হওয়ার জন্য। এর থেকে ১৩ জনকে প্রাথমিকভাবে স্বাক্ষাতকার নেওয়ার জন্য ডাকা হয়।ওই খান থেকে ১২ জন অংশ নেই। এর মধ্যে থেকে ৪ জনকে বাছাই করে পরিচালনা পর্ষদে নাম দেয় ডিএসইর নিয়োগ সংক্রান্ত কমিটি। বিএসইসির নির্দেশনা অনুযায়ী ৪ জন থেকে ১ জনকে প্রাথমিকভাবে বাছাই করে পর্ষদ সদস্যরা। উল্লেখ্য, বিএসইসির নির্দেশনা ছিল ডিএসইর পর্ষদ ব্যাবস্থপনা পরিচালকের জন্য ১ জনের নাম প্রস্তাব করবে। তার বিষয়ে বিএসইসি খোঁজ-খবর নিয়ে তাকে চুড়ান্ত অনুমোদন দিবে। সমস্যা থাকলে বিকল্প আরেক জনের নাম নিবে বিএসইসি।

সূত্র মতে, কে এ এম মাজেদুর রহমান ১৯৮১ সালে গ্রিন্ডলেজ ব্যাংকে ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার হিসেবে ব্যাংকিং ক্যারিয়ার শুরু করেন। প্রায় দীর্ঘ ৩৫ বছরের কর্মময় জীবনে তাঁর রয়েছে দেশ ও বিদেশে ব্যাংকিং অভিজ্ঞতা। তিনি লন্ডনে গ্রিন্ডলেজ ব্যাংকের গ্রুপ অডিটে ১৯৮৫ সালে নিয়োগপ্রাপ্ত হন। তিনি গ্রিন্ডলেজ ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ে বাংলাদেশ, ইউএই, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি দুবাইয়ের মাশরেক ব্যাংকেও দায়িত্ব পালন করেন। মাজেদুর রহমান এসএমই ব্যবসায় অর্থায়ন, ই-ব্যাংকিং, অল্টারনেট ডেলিভারি চ্যানেল ও ব্যাংকিং কার্যক্রমে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে বিশেষ অবদান রাখেন। তিনি ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রমোশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কম্পানি অব বাংলাদেশের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে বাংলাদেশে সিকিউরিটিরাইজেশন অব অ্যাসেট এবং জিরো কুপন বন্ড চালু করেন। তিনি ব্যাংক আল-ফালাহর প্রথম কান্ট্রি হেড হিসেবে বাংলাদেশে দায়িত্ব পালন করেন। প্রিমিয়ার ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে যোগ দেওয়ার আগে তিনি এবি ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

অর্থসূচক/গিয়াস

এই বিভাগের আরো সংবাদ