নৌপথ উন্নয়নে ৩৬০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নৌপথ উন্নয়নে ৩৬০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

নৌপথ উন্নয়নে বাংলাদেশকে ৩৬০ মিলিয়ন ডলার অর্থিক সহায়তা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। দেশের নদীগুলোর নাব্যতা বৃদ্ধি ও নৌপথে দিয়ে সারা বছর যাত্রী ও পণ্য পরিবহনের পরিবেশ নিশ্চিত করতে এই আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে সংস্থাটি।deasing

‘বাংলাদেশ আঞ্চলিক নৌপথ পরিবহন প্রকল্প-১’ এর অধীনে এই অর্থ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। জানা গেছে এই টাকা ব্যয়ে দেশের অভ্যন্তরের প্রায় ৯০০ কিলোমিটার নৌপথ সংস্কার করা হবে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম-ঢাকা-আশুগঞ্জ নৌরুটও রয়েছে।

সম্প্রতি বিশ্বব্যাংক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে দেশের অভ্যন্তরে পণ্য ও যাত্রী পরিবহণের ব্যয় ও সময় দুটোই বাঁচবে।

এছাড়া নৌপথে উন্নয়ন হলে রেল ও সড়ক পথের পাশাপাশি নৌপথে ভারত, নেপাল ও ভুটানের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য সম্পর্ক বৃদ্ধি পাবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের কান্ট্রি ডাইরেক্টর কুমিও ফান।

তিনি বলেন, নদী মাতৃক বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সুবস্তিৃত নৌপথ রয়েছে। এই নৌপথ দেশের অর্থনীতির চাকাকে আরও সচল করতে পারে। বিশেষ করে সম্প্রসারণশীল রপ্তানি খাতের উন্নয়নে নৌপথ বিশেষ সহায়তা করতে পারে।

 তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আঞ্চলিক নৌপথ পরিবহন প্রকল্প-১’ শীর্ষক প্রকল্পটি দেশের অভ্যন্তরে ও প্রতিবেশি দেশের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও আধুনিক ও শক্তিশালী করবে।

প্রকল্পটির অধীনে আশুগঞ্জ কার্গো টার্মিনালটির সংস্কার ও পানগাঁওয়ে আরও একটি কার্গো টার্মিনাল নির্মান করা হবে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

এই প্রকল্পের আওতায় সদরঘাট, নারায়নগঞ্জ, চাঁদপুর ও বরিশাল লঞ্চ টার্মিনালের প্রভুত সংস্কার করা হবে।

এছাড়া দেশের দরিদ্র জনগনের সুবিধার্থে বিভিন্ন অঞ্চলে ১৪টি নৌঘাট নির্মাণ করা হবে।

জানা গেছে, শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ সার্ভিস চার্জে এবং বিনা সুদে আগামী ৩৮ বছরে এই অর্থ ফিরিয়ে দিতে হবে।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ