অতীতের রেকর্ড ভেঙেছে ইউপি নির্বাচন: সুজন
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

অতীতের রেকর্ড ভেঙেছে ইউপি নির্বাচন: সুজন

সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে সহিংসতায় অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ হয়েছে বলে জানিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির নেতারা এ কথা বলেন।

Sujon

ইউপি নির্বান প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) সুজনের সংবাদ সম্মেলন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন সুজনের কেন্দ্রীয় কমিটির সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার। তিনি জানান, নির্বাচন পূর্ব, নির্বাচনকালীন ও নির্বাচন পরবর্তী সংঘর্ষ এবং নির্বাচনকেন্দ্রীক বিরোধের জেরে এবার ১৪৫ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এসব সহিংসতায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সিংহভাগই ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মী।

দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যম থেকে পাওয়া তথ্য তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, অতীতের ইউনিয়ন নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছিল ১৯৮৮ সালে। কিন্তু এবারের নির্বাচন সবকিছু অতিক্রম করেছে। সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতায় নিহত ১৪৫ জনের মধ্য নির্বাচন পূর্ব সংঘর্ষে ৫৬ জন, নির্বাচন কালীন সংঘর্ষে ৫৭ জন এবং নির্বাচনোত্তর সংঘর্ষে ৩২ জনের মৃত্যু হয়। আর আহতের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১১ হাজার।

নিহতদের দলগত পরিচয়ের দিক দিয়ে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের কর্মী বা সমর্থক ৫২ জন, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী বা সমর্থক ১৭ জন, বিএনপির তিন জন ও বিএনপির বিদ্রোহীর সমর্থক এক জন। এছাড়া অন্যান্য দলের কয়েকজন সমর্থক রয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে মনোনয়ন বাণিজ্য, দলীয়করণের প্রভাব, নির্বাচন কমিশন ও রাজনৈতিক দলগুলোর দায়িত্বে অবহেলা, ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচনসহ বিভিন্ন বিষয়ের সমালোচনা করা হয়। এ থেকে উত্তরণে করণীয় সম্পর্কেও কথা বলেন সুজন নেতারা।

সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন নির্বাচনকে ভৌতিক নির্বাচন বলে আখ্যায়িত করেন সুজনের নির্বাহী সদস্য ও কলাম লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ। তিনি বলেন, এ নির্বাচনের প্রায় সবকিছুই ছিল অনিয়মে ভরা। ভোটারের চেয়ে বেশি ভোট পড়েছে অনেক জায়গায়। এ কারণে বলা যেতে পারে, এটি একটি ভৌতিক নির্বাচন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন সুজন সভাপতি এম. হাফিজ উদ্দিন খান। এছাড়া সংবাদ সম্মলনে উপস্থিত ছিলেন, সুজন ঢাকা জেলা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মেজবাহ আলী প্রমুখ।

অর্থসূচক/মেহেদী/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ