‘ফ্লোরিডার নাইটক্লাবে হামলায় আইএসের সম্পৃক্ততা নেই’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘ফ্লোরিডার নাইটক্লাবে হামলায় আইএসের সম্পৃক্ততা নেই’

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় সমকামীদের প্রিয় পালস নাইটক্লাবে হামলার সঙ্গে ইসলামিক স্টেটের জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি বলেন, দেশের ভেতরে জন্ম নেওয়া চরমপন্থি আদর্শবাদীদের কাজ এটি।

ফ্লোরিডার অরল্যান্ডো শহরে স্থানীয় সময় গত শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে ‘পালস’ নামের নাইটক্লাবে ঢুকে গুলি চালায় ওমর মতিন নামে এক যুবক।  ওই হামলায় ৫০ জন নিহত হয়েছে। এতে আরও অনেকেই আহত হয়েছেন।

Pulse Nightclub

পালস নাইটক্লাবে হামলায় আহতদের কয়েকজন।

হামলা শুরুর প্রায় ৩ ঘণ্টার পর পালস ক্লাবে প্রবেশ করতে সক্ষম হয় পুলিশ। পরবর্তীতে পুলিশের গুলিতে ওই হামলাকারীর মৃত্যু হয়েছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে লস এঞ্জেলেসেও সমকামীদের সমাবেশে হামলার এক পরিকল্পনাকারীকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

এ হামলার পর এর দায় স্বীকার করেছে আইএস। এই গোষ্ঠীর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ‘আমাক’ সংবাদ সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একজন আইএস যোদ্ধাই এই হামলা চালিয়েছে।

তবে এমন দাবি অস্বীকার করেছে এফবিআই। আইএসের বক্তব্যের বিপরীতে অবস্থান নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও। তিনি বলেন, ওমর মতিন যে আইএসের নির্দেশে এই হামলা চালিয়েছে- এমন কোনো তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

ওবামা বলেন, ইসলামের নামে অপপ্রচার হচ্ছে; ইন্টারনেটের মাধ্যমেই এসব অপপ্রচার ছড়ানো হচ্ছে। আর বিভিন্ন ধরনের হামলার জন্য দুর্বল মনের মানুষদের প্ররোচিত করা হচ্ছে। পুরো বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক।

Pulse Nightclub2

হামলার পর পালস নাইটক্লাব পরিদর্শন করেন এফবিআই সদস্যরা।

তিনি আরও বলেন, উগ্রপন্থী আদর্শবাদ ও তার প্রচারণা ঠেকানো সম্ভব হলেই এই ধরনের হামলা প্রতিহত করা সম্ভব।

এটি সব আমেরিকানের ওপর হামলা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা ভয়ের কাছে নতি স্বীকার করব না কিংবা একে অন্যের বিরুদ্ধে দাঁড়াব না। এর পরিবর্তে আমাদের লোকজনকে রক্ষা ও আমাদের জাতীয়তাকে আগলে ধরে আমেরিকান হিসেবে ঐক্যবদ্ধ থাকব। যারা আমাদের হুমকি দেবে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

অন্যদিকে নাইটক্লাবে হামলা প্রসঙ্গে বারাক ওবামার অবস্থান ‘নমনীয়’ উল্লেখ করে তার সঙ্গে আইএস জঙ্গিদের সম্পৃক্ততার ইঙ্গিত করেছেন আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, আমরা এমন এক ব্যক্তির দ্বারা পরিচালিত হচ্ছি, যিনি কঠোর নন, বিচক্ষণ নন অথবা তার মনে অন্য কিছু আছে।

ট্রাম্প আরও বলেন, জনগণ বিশ্বাস করতে পারবে না যে, প্রেসিডেন্ট ওবামা নিজের মতো করে অভিনয় করছেন। এমন কি তিনি ‘চরমপন্থি ইসলামি সন্ত্রাসী’ শব্দও কখন বলেন না। সেখানে কিছু একটা চলছে। যেটা কল্পনাতীত। সেখানে কিছু একটা হচ্ছে।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই প্রধান জেমস কোমে বলেন, ওমর মতিন ইন্টারনেটের মাধ্যমে উগ্রপন্থায় অনুপ্রাণিত হন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে থেকে এই হামলার বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে- এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। নির্দিষ্ট কোনো জঙ্গি নেটওয়ার্কের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল- এমন কোনো ইঙ্গিত এখনও পাওয়া যায়নি।

এফবিআইয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা রন হপার জানান, ২০১৩ ও ২০১৪ সালেও ওমর মতিন সম্পর্কে তদন্ত করা হয়েছিল। ২৯ বছর বয়সী এই যুবকের জন্ম যুক্তরাষ্ট্র। তবে তার মা-বাবা আফগানিস্তানের নাগরিক।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ