দুঃসময়ে যুক্তরাষ্ট্রের পাশে রয়েছে বাংলাদেশ সরকার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

দুঃসময়ে যুক্তরাষ্ট্রের পাশে রয়েছে বাংলাদেশ সরকার

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার নাইটক্লাবে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এই দুঃসময়ে যুক্তরাষ্ট্র সরকার এবং বন্ধুপ্রতীম জনগণের পাশে রয়েছে বাংলাদেশের জনগণ ও সরকার।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে পাঠানো এক শোক বার্তায় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, এই ঘৃণিত সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। একইসঙ্গে যেকোনো ধরনের সন্ত্রাস বা উগ্রচরমপন্থার বিরুদ্ধে আমার সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির পুনরোল্লেখ করছি।

শেখ হাসিনা বলেন, সন্ত্রাসীদের কোনো জাত-পাত, ধর্ম, বর্ণ, গোত্র নেই। সন্ত্রাসীর পরিচয় সে শুধুই সন্ত্রাসী। শান্তিপ্রিয় সমাজ থেকে তাদের উচ্ছেদে আমাদের সংঘবদ্ধ প্রচেষ্টাকে আরও শক্তিশালী করতে হবে।

ওই শোক বার্তায় তিনি লিখেছেন, ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের অরল্যান্ডোর একটি ‘কমিউনিটি ক্লাবে’ সংঘটিত সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ জন নিহত এবং বহু আহতের ঘটনায় আমি গভীরভাবে মর্মাহত এবং শোকাহত।

Pulse nightclub

ফ্লোরিডার পালস নাইটক্লাবে বন্দুকধারীর গুলিতে ৫০ জন নিহত হওয়ার পর ওই এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে পুলিশ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই দুঃসময়ে আমেরিকার সরকার এবং বন্ধুপ্রতীম জনগণের পাশে রয়েছ বাংলাদেশের জনগণ ও সরকার।

মানব সভ্যতার জন্যই হুমকি হিসেবে বর্তমান সময়ের সন্ত্রাস ও চরমপন্থার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কাধে কাঁধ মিলিয়ে একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার পুনব্যক্ত করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার শিকার ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্য এবং সর্বোপরি যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের প্রতি অন্তরের অন্তস্থল থেকে শোক এবং সহানুভূতি জানাচ্ছি। সন্ত্রাসী ঘটনায় প্রতিটি মৃত্যুর জন্যই আমাদের হৃদয় শোকে ব্যথাতুর।

ফ্লোরিডার অরল্যান্ডো শহরে স্থানীয সময় শনিবার মধ্যরাতে ‘পালস’ নামের নাইটক্লাবে ঢুকে গুলি চালায ওমর মতিন নামে এক যুবক।  ওই হামলায় ৫০ জন নিহত হয়েছে। এতে আরও অনেকেই আহত হয়েছেন।

হামলা শুরুর প্রায় ৩ ঘণ্টার পর পালস ক্লাবে প্রবেশ করতে সক্ষম হয় পুলিশ। পরবর্তীতে পুলিশের গুলিতে ওই হামলাকারীর মৃত্যু হয়েছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ