নারীরাই বেশি দুশ্চিন্তা করেন!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নারীরাই বেশি দুশ্চিন্তা করেন!

অভিজ্ঞ পুরুষদের তুলনায় নারীরা বেশি দুশ্চিন্তা করেন। আর দুশ্চিন্তা থেকে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়া ব্যক্তির তালিকায়ও অনেক এগিয়ে রয়েছেন নারী।

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রাপ্ত বয়ষ্ক অভিজ্ঞ পুরুষের তুলনায নারীদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি থাকে। এর কারণ নারীরা অনেক বেশি দুশ্চিন্তা করেন। দুশ্চিন্তাগ্রস্ত থাকার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তরুণরা। অভিজ্ঞ পুরুষদের তুলনায় অনেক বেশি দুশ্চিন্তায় থাকে তরুণরা।

এক গবেষণার পর সম্প্রতি এসব তথ্য জানিয়েছেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষক দলের প্রধান অলিভিয়া রেমেস।anxiety in women

তিনি বলেন, দুশ্চিন্তা বা উদ্বেগ এক ধরনের মানসিক সমস্যা। সাধারণত অতিরিক্ত চিন্তা, ভয় এবং সামাজিক চাপের কারণেই দুশ্চিন্তা দেখা দেয়। তরুণরা সাধারণত তাদের ক্যারিয়ার নিয়ে অনেক বেশি দুশ্চিন্তায় থাকে।

অলিভিয়া রেমেস বলেন, উদ্বেগ বা দুশ্চিন্তার কারণে অনেকের মারাত্মক শারিরীক সমস্যাও দেখা দেয়। কে বা কারা এই মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছেন- তাদের সম্পর্কে সঠিকভাবে খোঁজ নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। এটি স্বাস্থ্য সেবার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ওই গবেষণায় দেখা গেছে, প্রাপ্ত বয়ষ্ক অভিজ্ঞ পুরুষদের ১০ দশমিক ৯ শতাংশই দুশ্চিন্তার কারণে হৃদরোগের ঝুঁকিতে থাকেন। অন্যদিকে নারীদের ক্ষেত্রে এই হার পুরুষের সংখ্যার প্রায় দ্বিগুণ। একইসঙ্গে নারীদের গর্ভকালীন সময়ে দুশ্চিন্তার ফলে হৃদরোগের পাশাপাশি ক্যান্সারের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে।

অলিভিয়া রেসেম বলেন, সাধারণত ১ শতাংশ মানুষ অনিয়ন্ত্রিত চিন্তা আচরণ ব্যাধিতে (OCD) আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে গর্ভবতী মহিলার ক্ষেত্রে এই ঝুঁকি দ্বিগুণেরও বেশি।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা সহযোগী লুইস লাফরচুন বলেন, অতিমাত্রায় উদ্বেগ বা দুশ্চিন্তা থেকে স্বাস্থ্যহানি এবং কর্মক্ষমতা হ্রাস পেতে পারে। একইসঙ্গে আত্মহত্যার প্রবনতাও অনেক বেশি বেড়ে যায়।

গবেষণায় আরও বলা হয়েছে, সারা বিশ্বের মধ্যে পশ্চিম ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকা অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষরাই তুলনামূলকভাবে বেশি দুশ্চিন্তা করেন। অন্যদিকে ৩৫ বছর বয়স পর্যন্ত তরুণ-তরুণীদের মধ্যে দুশ্চিন্তার প্রবণতা অনেক বেশি থাকে। ৩৫ বছরের পর পুরুষদের ক্ষেত্রে দুশ্চিন্তার পরিমাণ কমে যায়। তবে নারীদের ক্ষেত্রে এটা অনেকটা বিপরীত।

অর্থসূচক/তিন্নি/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ