একমি ল্যাবরেটরিজের লেনদেন শুরু
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পুঁজিবাজার

একমি ল্যাবরেটরিজের লেনদেন শুরু

একমি ল্যাবরেটরিজের চুক্তি সই অনুষ্ঠান

একমি ল্যাবরেটরিজের চুক্তি সই অনুষ্ঠান

ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড আজ মঙ্গলবার থেকে পুঁজিবাজারে লেনদেন শুরু করেছে।  ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) কোম্পানিটির প্রথম লেনদেন শুরু হয় ১৩৫ টাকা দরে।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, লেনদেনের আধা ঘণ্টার মধ্যে অর্থাৎ ১০টা ৫৭ মিনিট পর্যন্ত শেয়ারটির দর  ১১৮ টাকা ১০ পয়সা থেকে ১৩৫ টাকা পর্যন্ত ওঠানামা করে। এই সময়ে শেয়ারটি সর্বশেষ লেনদেন হচ্ছে ১২৩ টাকা ৮০ পয়সা দরে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোম্পানিটি ১৯ হাজার ২১০ বারে ৫৯ লাখ ২৯ হাজার ৭৬২টি শেয়ার লেনদেন করেছে।

লেনদেন শুরুর আগে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সাথে একমি ল্যাবরেটরিজের চুক্তি সই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। এসময় ডিএসইর পক্ষ থেকে শফিকুল ইসলাম ভুঁইয়া ও কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান সিনহা চুক্তি সই করেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মতিন পাটোয়ারি, চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা ও সিএফও মো. মফিজুর রহমান।

প্রসঙ্গত, একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড পুঁজিবাজারে ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করেছ। ডিএসইতে কোম্পানিটির ট্রেডিং কোড ” একমিল্যাব”। আর কোম্পানি কোড ১৮৪৯১।

অন্যদিকে সিএসইতে কোম্পানিটির স্ক্রীপ কোড ” একমিল্যাব”। আর কোম্পানিটির স্ক্রীপ আইডি ১৩০৩০।

এর আগে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫৬৭তম সভায় কোম্পানিটিকে ৫ কোটি সাধারণ শেয়ার বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আইপিওতে ছাড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়।

এর মধ্যে ৫০ শতাংশ বা আড়াই কোটি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য; ১০ শতাংশ বা ৫০ লাখ শেয়ার মিউচ্যুয়াল ফান্ডের জন্য। যার প্রতিটি শেয়ারের কাট-অফ মূল্য ৮৫ টাকা ২০ পয়সা, বাকি ৪০ শতাংশ বা ২ কোটি শেয়ার সাধারণ বিনিযোগকারী, ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারী ও এনআরবিদের জন্য। এই শেয়ারের কাট-অফ মূল্য ১০ শতাংশ কমে বা ৭৭ টাকায় সাধারণ বিনিয়োগকারী, ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারী ও এনআরবিদের জন্য প্রস্তাব করা হয়।

আইপিও আবেদনের মাধ্যমে কোম্পানিটি ৪০৯ কোটি ৬০ লাখ টাকা উত্তোলন করে। এই টাকা দিয়ে কোম্পানিটি ৩টি নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে খরচ করবে।

কোম্পানিটির বিগত ৫ বছরের নিরীক্ষিত বিবরণী অনুযায়ী, শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ০৭ পয়সা। আর ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছর অনুযায়ী ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ৭০ পয়সা। কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য বা এনএভি ৭০ টাকা ৩৭ পয়সা।

ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। আর রেজিষ্টার টু দি ইস্যুর দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

অর্থসূচক/মাহামুদ/ এসএ/

 

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ