‘মুঠোফোনে বেশি টাকা কাটা শুরু’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘মুঠোফোনে বেশি টাকা কাটা শুরু’

২০১৬-১৭ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে মোবাইল সেবার ওপর আরোপ করা অতিরিক্ত দুই শতাংশ সম্পূরক কর আদায় শুরু হয়েছে। আজ শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে মোবাইলে কথা বলার উপর এই অতিরিক্ত টাকা কাটা শুরু হয়েছে। তবে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে এই অতিরিক্ত কর আদায় হবে না।

মোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটব বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ছবিটি প্রতীকী

ছবিটি প্রতীকী

সংগঠনটি জানিয়েছে, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, অর্থমন্ত্রী সংসদে বাজেট ঘোষণার পর থেকেই নতুন করহার কার্যকর হয়ে যায়। এরইমধ্যে অপারেটরদের পক্ষ থেকে এসএমএস পাঠিয়ে নতুন কর আদায়ের কথা জানানো হচ্ছে। ভয়েস কল, মোবাইল ইন্টারনেট এসএমএস, এমএমএসসহ সিমকার্ডভিত্তিক সব সেবার জন্য বর্ধিত কর নেওয়া হচ্ছে। তবে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বর্ধিত করের আওতায় পড়ছে না।

অন্যদিকে, অতিরিক্ত সম্পূরক কর প্রত্যাহারের জন্য শুক্রবার অনুরোধ জানিয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটর রবি। রবির ভাইস প্রেসিডেন্ট (কমিউনিকেশন অ্যান্ড করপোরেট রেসপনসিবিলিটি) ইকরাম কবীর এক বিৃতিতে বলেন, ‘আশঙ্কা করা হচ্ছে মোবাইল সেবায় বর্ধিত করের কারণে সার্বিকভাবে মোবাইল টেলিযোগাযোগ খাত থেকে রাজস্ব কমে যাবে। কারণ অতিরিক্ত করের কারণে গ্রাহকরা সেবা গ্রহণের হার কমিয়ে দেবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘মোবাইল খাতকে বৈষম্যমূলকভাবে উচ্চহারে কর্পোরেট কর দিতে হচ্ছে।’ এই খাতে আরও বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য তিনি কর্পোরেট কর কমানোরও অনুরোধ জানান।

এর আগে অ্যামটব ও গ্রামীণফোনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবারই বর্ধিত কর প্রত্যাহারের অনুরোধ জানানো হয়।

বর্ধিত করের কারণে শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে গ্রাহকরা ভয়েস কল, মোবাইল ইন্টারনেট সেবা এবং এসএমএসসহ সিমকার্ডভিত্তিক সব ধরনের মোবাইল সেবার ক্ষেত্রে মোট ২১ শতাংশ বাড়তি কর দিতে হচ্ছে। এর মধ্যে ১৫ শতাংশ ভ্যাট, ৫ শতাংশ সম্পূরক কর ও ১ শতাংশ সারচার্জ। তবে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার ক্ষেত্রে বাড়তি কর প্রযোজ্য হচ্ছে না।

অ্যামটব জানায়, সিমকার্ডের মাধ্যমে যেসব সেবা সরাসরি গ্রাহকের কাছে যায় সেসব সেবার ক্ষেত্রেই কেবলমাত্র বর্ধিত কর প্রযোজ্য হবে। মোবাইল ব্যাংকিং সেবা সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের মাধ্যমে গ্রাহকের কাছে যায়। এ কারণে এক্ষেত্রে মোবাইল অপারেটরের নেটওয়ার্ক ব্যবহৃত হলেও গ্রাহক বর্ধিত করের আওতায় পড়বেন না।

অর্থসূচক/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ