একমির লেনদেন হতে পারে আগামী সপ্তাহে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

একমির লেনদেন হতে পারে আগামী সপ্তাহে

সম্প্রতি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) তালিকাভুক্ত হয়েছে ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড। ডিএসইর সর্বশেষ পরিচালনা পর্ষদের সভায় কোম্পানিটিকে তালিকাভুক্ত করা হয়। আগামী সপ্তাহে কোম্পানিটির লেনদেন শুরু হতে পারে।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

Acme Logo

একমি ল্যাবরেটরিজ-এর লোগো

কোম্পানি সূত্রে  জানা যায়, স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্তির পরই সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশে (সিডিবিএল) শেয়ার দেবে কোম্পানিটি। সিডিবিএল ওই শেয়ার আইপিওতে লটারি পাওয়া বিনিয়োগকারী ও সংশ্লিষ্ট প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে পাঠানোর পর সেই প্রতিবেদন স্টক এক্সচেঞ্জে জমা দেবে। এরপরই স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ লেনদেনের সিদ্ধান্ত নিবে। এই প্রক্রিয়া শেষ করে আগামী সপ্তাহে লেনদেন চালু হতে পারে একমি ল্যাবরেটরিজের।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫৬৭তম সভায় কোম্পানিটিকে ৫ কোটি সাধারণ শেয়ার বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আইপিওতে ছাড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়।

এর মধ্যে ৫০ শতাংশ বা আড়াই কোটি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য; ১০ শতাংশ বা ৫০ লাখ শেয়ার মিউচ্যুয়াল ফান্ডের জন্য। যার প্রতিটি শেয়ারের কাট-অফ মূল্য ৮৫ টাকা ২০ পয়সা, বাকি ৪০ শতাংশ বা ২ কোটি শেয়ার সাধারণ বিনিযোগকারী, ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারী ও এনআরবিদের জন্য। এই শেয়ারের কাট-অফ মূল্য ১০ শতাংশ কমে বা ৭৭ টাকায় সাধারণ বিনিয়োগকারী, ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারী ও এনআরবিদের জন্য প্রস্তাব করা হয়।

আইপিও আবেদনের মাধ্যমে কোম্পানিটি ৪০৯ কোটি ৬০ লাখ টাকা উত্তোলন করে এই টাকা দিয়ে ৩টি নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে খরচ করবে।

কোম্পানিটির বিগত ৫ বছরের নিরীক্ষিত বিবরণী অনুযায়ী, শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ০৭ পয়সা। আর ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছর অনুযায়ী ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ৭০ পয়সা। কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য বা এনএভি ৭০ টাকা ৩৭ পয়সা।

ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। আর রেজিষ্টার টু দি ইস্যুর দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

অর্থসূচক/গিয়াস/মাহমুদ/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ