সেবা খাতে করের পরিধি বাড়ানোর প্রস্তাব
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

সেবা খাতে করের পরিধি বাড়ানোর প্রস্তাব

সেবা খাতের করের পরিধি বাড়িয়ে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য ৩ গুণ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি।

২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেট সামনে রেখে বুধবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারের পক্ষ থেকে এই সুপারিশ তুলে ধরেন সাধারণ সম্পাদক এ কে এম ইছমাইল।

তিনি জানান, এর মাধ্যমে রাজস্ব আয় ৬ লাখ ৩৮ হাজার ১৪২ কোটি টাকা অর্জন করা সম্ভব।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি।

গত বছরের বাজেটে মোট রাজস্ব আয় দুই লাখ ৮ হাজার ৪৪৩ কোটি টাকার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, চলতি বাজেটে সেবা খাতের অনেকগুলোকে আয়ের উৎস হিসাবে রাখা হয়নি। আমাদের প্রস্তাব, সেবা খাতে নতুন কর আদায়ের উৎসগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করলে রাজস্ব আয় বৃদ্ধি করা সম্ভব।

দেশে  কর্মরত বিদেশি ও পর্যটকদের উপর কর, সম্পদ কর, বিমান পরিবহন ও ভ্রমণ কর ও বিভিন্ন সেবা প্রতিষ্ঠানের উপর নতুন করে করারোপের পরামর্শ দেন তিনি।

ইছমাইল বলেন, বিউটি পার্লার, সেলুন, রেস্তরাঁ ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে আপনার কাছ থেকে ভ্যাটের কথা বলে টাকা নিচ্ছে। কিন্তু এ ধরনের প্রতিষ্ঠানগুলো সরকারকে আদায়কৃত অর্থ জমা দেয় না।

“বিদেশিরা এদেশে কাজ করে অর্থ উপার্জন করলেও কর দেয় না। করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোও ব্যাপক কর ফাঁকি দেয়। এ বিষয়ে কঠোর নজরদারি এবং কর আদায়কারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে দুর্নীতি হ্রাস প্রয়োজন।”

বিদেশি ঋণ সহায়তার উপর নির্ভরতার গ্রহণের পরিবর্তে সরকারকে নিজস্ব আয় বাড়ানোর দিকে মনোযোগ দেওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি।

চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারের সাবেক সভাপতি জ্যোতি প্রকাশ দত্ত বলেন, জামায়াত তার শতাধিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে ব্যবহার করছে মৌলবাদ বিস্তারে। তাই জামায়াত সংশ্লিষ্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো নিষিদ্ধ না করলে সরকারের পক্ষে জামায়াত ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রন সম্ভব হবে না।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম, কোষাধক্ষ সুজিত কুমার দত্ত, সদস্য মনছুর এম ওয়াই চৌধুরী।

এই বিভাগের আরো সংবাদ