'উন্নয়নের গতি ধরে রাখতেই বড় বাজেট'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘উন্নয়নের গতি ধরে রাখতেই বড় বাজেট’

উন্নয়নের গতিধারা ধরে রাখতেই আগামী ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য বড় বাজেট দেওয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

আজ শনিবার রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) ভবনে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আয়োজিত সেমিনারে এ কথা বলেন তিনি। মূল্য সংযোজন কর (মূসক) ও সম্পূরক শুল্ক আইন-২০১২ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট এবং আয়কর বিভাগের কর্মকর্তাদের নিয়ে এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী বলেন, আগামী অর্থবছরের জন্য ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করতে যাচ্ছে সরকার। অনেকে এটাকে উচ্চভিলাষী বাজেট বলে আখ্যায়িত করেছেন। কিন্তু এ রকম বড় বাজেট দিতে না পারলে আমাদের উন্নয়ের গতি ধারা ধরে রাখা সম্ভব হবে না।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে করের আওতায় যে পরিমাণ লোকের থাকার কথা, সে পরিমাণ লোক করের আওতায় নেই। অন্যান্য দেশের করদাতা অনেক বেশি। আমাদের দেশেও সাধারণ মানুষ কর দিতে চায়; তাদের অনেকেই কর দেয়। আসলে আমরাই কর দিতে চাই না।

menon

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। ফাইল ছবি

রাশেদ খান মেনন বলেন, কর দিতে চায় না তারাই, যাদের আয় বেশি। তাদের হয়তো অপ্রদর্শিত আয় রয়েছে। এখন কর দিতে গেলে হয়তো ধরা পড়বে বলে তারা কর দিতে চায় না।

তিনি বলেন, আমাদের সবচেয়ে বড় অর্জন হলো, গত ৭ বছরে ধরে আমাদের জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৬ এর ঘরে ছিল। এখন সেই বৃত্ত ভেঙ্গে তা ৭ পর্যন্ত উন্নীত করেছি। এই প্রবৃদ্ধি ধারাবাহিকতাকে বজায় রাখতে হলে অবশ্যই কর দিতে হবে। সেইসঙ্গে করের আওতাও বৃদ্ধি করতে হবে।

পর্যটনমন্ত্রী আরও বলেন, আশির দশকে আমাদের বাজেটে বৈদেশিক সাহায্য নির্ভরতা ছিল। কিন্তু এখন গর্ব করে বলতে পারি, সেই বৈদেশিক সাহায্যের পরিমাণ ৪ থেকে ৫ শতাংশে নেমে এসেছে। বৈদেশিক সাহায্যের সংস্কৃতি থেকে আমরা বেড়িয়ে আসতে চাই। এজন্য আমাদের করের পরিধি আরও বাড়াতে হবে। কর আদায় বৃদ্ধি করতে পারলে অন্যের উপর আমাদের নির্ভরতা কমে আসবে।

নতুন ভ্যাট আইন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এই আইন জলদি বুঝে নেওয়ার বিষয় নয়। সাধারণ মানুষ যেন বুঝতে পারে সেজন্য সভা-সেমিনার-ওয়ার্কশপ অব্যাহত রাখতে হবে। নতুন ভ্যাট আইন নিয়েও কথা উঠবে। তবে এটাতেও জনগণ ভালো ফল পাবে বলে আশা রাখছি।

এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন এনবিআর সদস্য (কর) আব্দুর রাজ্জাক, সদস্য (মূসক নীতি) ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন, সদস্য ( শুল্কনীতি) সুলতান মো. ইকবাল প্রমুখ।

অর্থসূচক/মাইদুল/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ