‘জ্ঞান-প্রযুক্তি রপ্তানি করতে চাই’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘জ্ঞান-প্রযুক্তি রপ্তানি করতে চাই’

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আমরা সারা জীবন বিদেশে থেকে জ্ঞান আমদানি করতে পারবো না। আমরা রপ্তানিকারক হতে চাই, এদেশে থেকে জ্ঞান ও প্রযুক্তি বাইরে রপ্তানি হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে ইএটিএল-প্রথমআলো অ্যপস কনটেস্ট-২০১৬’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্য ও প্রযুক্তিতে তরুণদের দক্ষ করে তোলার উদ্দেশ্যে চতুর্থবারের মতো এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রথমবারের মতো আর্থিক সহায়তা করছে বিশ্বব্যাংক ও কানাডা।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে ইএটিএল-প্রথমআলো অ্যপস কনটেস্ট-২০১৬’র উদ্বোধন করা হয়। ছবি মহুবার রহমান।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে ইএটিএল-প্রথমআলো অ্যপস কনটেস্ট-২০১৬’র উদ্বোধন করা হয়। ছবি মহুবার রহমান।

অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শুরুতে আমরা যখন আইসিটিকে আবশ্যকীয় পাঠের অন্তর্ভুক্ত করতে চেয়েছিলাম তখন অনেকেই বিরোধিতা করেছিলেন। ওই সময়ে দুই-একটি ব্যতিক্রম ছাড়া দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে কোনো কম্পিউটার ছিল না। আইসিটি শিক্ষা চালু করার জন্য যাচাই-বাছাই করতে গেলাম, তখন জানলাম প্রস্তুতি নিয়ে এ শিক্ষা চালু করতে গেলে ১৭০ বছর লাগবে। তখন আমি বললাম, যেভাবে আছে সেভাবেই শুরু করি। বর্তমানে দেশে এমন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই যেখানে অন্তত একটি কম্পিউটার নেই।

দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে জ্ঞান তৈরিতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের দেশ থেকে ছেলেমেয়েরা বিদেশে পড়তে যায়। তারা সেদেশের জন্যই জ্ঞান তৈরি করে। আমি আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে জ্ঞান তৈরিতে জোর দেওয়ার জন্য বলব।

নুরুল ইসলাম বলেন, আমরা এ দেশের আগামী প্রজন্মকে মানসম্মত শিক্ষার মাধ্যমে যথাযথ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। তারা যেন ভালো নাগরিক হয় সেটাও আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।

অ্যাপস তৈরির প্রতিযোগিতা আয়োজনকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, এ ধরনের আয়োজন নতুন নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনে তরুণদের উৎসাহিত করবে।

তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এ ধরনের প্রতিযোগিতা উৎসাহিত করার জন্য আগামী কয়েক বছরের মধ্যে মোবাইল অ্যাপস নিয়ে ঢাকায় একটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা আয়োজনের চেষ্টা করবো।

এসময় অন্যদের মধ্যে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর কিমিও ফ্যান, কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনইত পিয়েরি লারামে, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, ইএটিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ মুবিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, চতুর্থ বারের মতো আয়োজিত এ প্রতিযোগিতায় আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত আইডিয়া জমা দেওয়া যাবে। এই প্রথমবার অ্যান্ড্রয়েডের পাশাপাশি আইওএস ও উইন্ডোজ মোবাইলের জন্য অ্যাপ তৈরি করা যাবে।

এসবি/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ