‘ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুতে চট্টগ্রামে ক্ষতি ১৫০ কোটি টাকা’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » চট্টগ্রাম ও বন্দর

‘ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুতে চট্টগ্রামে ক্ষতি ১৫০ কোটি টাকা’

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর প্রভাবে বন্দর নগরী চট্টগ্রাম ও চারটি উপজেলায় প্রায় ১৫০ কোটি টাকার গবাদিপশু, মৎস্য ও ফসলের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

গতকাল রাতে ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানান চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ।

Cyclone ROANU

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর প্রভাবে উত্তাল সাগর। সেন্টমার্টিন থেকে ছবিটি তুলেছেন ওবায়দুল হক চৌধুরী।

জেলা প্রশাসক বলেন, ঘূর্ণিঝড়ে জেলার বাঁশখালী ও সীতাকুণ্ড উপজেলায় মোট ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সন্দ্বীপ, বাঁশখালী, আনোয়ারা ও সীতাকুণ্ডে রোয়ানুর প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে পানিবন্দি হয়েছে আড়াই লাখের বেশি লোক। পানিতে তলিয়ে গেছে পটিয়া এবং রাউজানের ছয়টি ইউনিয়ন।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড়ে নিহতদের পরিবারকে প্রাথমিক পর্যায়ে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে। তবে ওই সব পরিবারের যদি আরও সাহায্য প্রয়োজন হয় সেটাও দেওয়ার চেষ্টা করা হবে।

মেজবাহ উদ্দিন আহমাদ জানান, ঘূর্ণিঝড়ের বাঁশখালী ও সন্দ্বীপে বেড়িবাঁধ ভেঙে যাওয়ায় কয়েকটি ইউনিয়নে তলিয়ে গেছে। এছাড়া বাঁশখালী উপজেলার গণ্ডামারা, ছনুয়া, খানকানাবাদ ইউনিয়ন; সন্দ্বীপের রহমতপুর, উড়ির চর, মগধরা, কালাপানিয়া ও সারিকাইত ইউনিয়নে সমুদ্রের পানি প্রবেশ করেছে।

এছাড়া চট্টগ্রাম নগরীর পতেঙ্গা এলাকায় বেড়িবাঁধ সংলগ্ন শতাধিক ঘরবাড়ি ও দোকানপাট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক জানান।

জেলা প্রশাসক বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত সন্দ্বীপ উপজেলায় ১ লাখ টাকা ও ১৫ মেট্রিক টন চাল, বাঁশখালী উপজেলায় ১ লাখ টাকা ও ৫ মেট্রিক চন চাল, আনোয়ারা উপজেলায় ৫০ হাজার টাকা ও ৩ মেট্রিক টন চাল এবং সীতাকুণ্ড উপজেলায় ৪০ হাজার টাকার ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।

অর্থসূচক/ডিবি/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ