আল-কায়েদার তরুণ এজেন্ট তারেক রহমান: কামরুল ইসলাম

kamrul islam
খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। ফাইল ছবি।

কামরুল ইসলামজামায়াত হলো আল-কায়েদার নতুন সংযোজন আর এর মূল তরুণ এজেন্ট তারেক রহমান- এমন  মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘দেশ রত্ন সেবক পরিষদ আয়োজিত বাংলাদেশ  শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্টের ষড়যন্ত্র-আল-কায়েদার অপতৎপরতার নেপথ্যে কারা’? শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

কামরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে ২০০১ সাল থেকে আল-কায়েদার কার্যক্রম শুরু হয়ে এখনও বিদ্যমান আছে।

স্বাধীনতা বিরোধী দল থেকেই বিএনপির জন্ম উল্লেখ করে তিনি বলেন, আল-কায়েদার বাংলাদেশি সংস্করণ জামায়াত-শিবির মৌলবাদী গোষ্ঠীর পৃষ্ঠপোষক হলো তারেক রহমান।

তিনি বলেন, বিএনপর মধ্যে স্বাধীনতা বিরোধী কিছু লোক আছে যাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে আল-কায়দাদের সাথে।

তবে বাংলাদেশে কখনও আল-কায়দার স্থায়ী ঘাটি তৈরি করতে দেওয়া হবে না এমন দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি বলেন, আল-কায়েদা পাকিস্তানের মতো বাংলাদেশকেও অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়। কিন্তু দেশের তরুণ সমাজ তাদের রুখে দিবে।

তিনি বঙ্গবন্ধুর হত্যার ব্যাপারে বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল হোতা ছিল জিয়াউর রহমান। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মূল উদ্দেশ্য ছিল ক্ষমতার মসনদে যাওয়া।

আসন্ন উপজেলা নির্বাচন সম্বন্ধে কামরুল বলেন, উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু হবে এবং সরকার কোনো হস্তক্ষেপ করবে না।

দেশ রত্ন সেবক পরিষদের সভাপতি চিত্ত রঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- সাংস্কৃতি জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা, ভোরের সময়ের উপদেষ্টা নওশের আলী, শিক্ষক নেতা শাহাজান আলম সাজু, কৃষক লীগের সহ-সভাপতি এম.এ. করিম, বিশিষ্ট চিকিৎষক ও বাংলাদেশ পেশাজীবী পরিষদের মহাসচিব কামরুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি মেহেদি হাসান প্রমুখ।

জেইউ/কেএফ