সিরিয়ার হাসপাতালে জঙ্গি হামলায় নিহত ২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

সিরিয়ার হাসপাতালে জঙ্গি হামলায় নিহত ২০

সিরিয়ার হাসপাতালে জঙ্গি হামলায় সরকারি বাহিনীর কমপক্ষে ২০ সদস্য নিহত হয়েছে। আজ রোববার বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, এই হামলার জন্য মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) দায়ী করা হচ্ছে।

এতে জানানো হয়েছে, সিরিয়ার দেইর আল জৌর এলাকার আল-আসাদ হাসপাতালে হামলা চালিয়ে চালিয়েছে আইএস। এক পর্যায়ে হাসপাতালের নিরাপত্তায় নিয়োজিত সরকারি বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে আইএসের সংঘর্ষ শুরু হয়। ওই হামলায় সরকারি বাহিনীর কমপক্ষে ২০ সদস্য নিহত হয়েছে। হাসপাতালটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে আইএস জঙ্গীরা।

Deir Al Zor, Syria

আইএসের হামলায় বিধ্বস্ত দেইর আল জৌর এলাকার একাংশ।

সিরিয় একটি মানবাধিকার সংস্থার বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, হামলার পর হাসপাতালের কর্মচারীদেরও জিম্মি করে রেখেছে আইএস জঙ্গীরা।

দেইর আল জৌরের অর্ধেকেরও বেশি এলাকা আইএসের দখলে রয়েছে। পুরো এলাকা দখলে নিয়ে একের পর এক হামলা চালাচ্ছে তারা।

অন্যদিকে লেবাননের শিয়া সশস্ত্র সংগঠন হেজবুল্লাহর শীর্ষস্থানীয় সামরিক কমান্ডার মুস্তাফা আমিনি বদরেদ্দিনের মৃত্যুর জন্য সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বিরোধী সুন্নি বিদ্রোহীদের দায়ী করে বিবৃতি দিয়েছে সংগঠনটি।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দামেস্ক বিমানবন্দরের কাছে একটি ঘাঁটি লক্ষ্য করে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল। সেই বিস্ফোরণে শহীদ হন কমান্ডার মুস্তাফা বদরেদ্দিন। ওই এলাকার তাকফিরি (সশস্ত্র সুন্নি ইসলামপন্থী গোষ্ঠী) গোষ্ঠীর গোলাবর্ষণের কারণে ওই বিস্ফোরণরে ঘটনা ঘটে।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে সিরিয়ার হেজবুল্লাহর সামরিক প্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন মুস্তাফা বদরেদ্দিন। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সমর্থনে ইতোমধ্যে কয়েক হাজার যোদ্ধা পাঠিয়ছে হেজবুল্লাহ।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ