পত্রিকার মতো ভ্যাট সুবিধা চান চ্যানেল মালিকরা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

পত্রিকার মতো ভ্যাট সুবিধা চান চ্যানেল মালিকরা

পত্রিকার সঙ্গে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর ভ্যাটসহ অন্যান্য বিষয়ে সমতা আনার দাবি জানিয়েছে দেশীয় টেলিভিশন চ্যানেল মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স (অ্যাটকো)।

শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার রাজস্ব ভবনের সম্মেলন কক্ষে এনবিআরের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনা সভায় এ দাবি জানান সংগঠনটির নেতারা।atco

সংগঠনটির চেয়ারম্যান ও এনটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোসাদ্দেক আলী ফালু বলেন, দেশি চ্যানেলগুলো বিজ্ঞাপনের আয়ের ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও ২০ শতাংশ আয়করসহ অন্যান্য কর প্রদান করতে হয়। তাছাড়া টেলিভিশনগুলোকে দুই জায়গাতে কর সংক্রান্ত কাগজপত্র জমা দিতে হয়। বিজ্ঞাপণের অর্থ পাওয়ার আগেই রাজস্ব বোর্ডকে ভ্যাটের অর্থ পরিশোধ করতে হয়। অথচ পত্রিকাগুলো বিজ্ঞাপন প্রকাশের পর ভ্যাট প্রদান করে থাকে। বিষয়টি বৈষম্যমূলক। এ বিষয়েও এনবিআরের কাজে সমতানীতি প্রত্যাশা করি।

তিনি বলেন, একই দেশে এক এনবিআরে দুই নিয়ম চালু রয়েছে। পত্রিকায় টাকা দিয়ে সরকারি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করলেও টেলিভিশনের ক্ষেত্রে কোনো অর্থ বরাদ্দ নেই। এ বিষয়েও তিনি এনবিআরের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

অ্যাটকো মহাসচিব ও চ্যানেল আই’র পরিচালক শাইখ সিরাজ বলেন, বাংলাদেশে প্রদর্শিত বিদেশি চ্যানেলগুলোতে প্রচুর বিজ্ঞাপন প্রচারিত হলেও তারা কোনো প্রকার রাজস্ব সরকারকে দিচ্ছে না। দেশি চ্যানেলগুলো প্রতিযোগীতায় পিছিয়ে পড়ছে। এনবিআরকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এসময় অ্যাটকোর উদ্দেশে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, এনবিআরের নিউজ টেলিভিশনে গুরুত্বসহকারে প্রকাশ করা জন্য আপানাদের ধন্যবাদ। আপনাদের বক্তব্যে যে সমস্যাগুলো পরিলক্ষিত হয়েছে তা বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

তিনি বলেন, আগামী বাজেট হবে সৎ ব্যবসায়ীদের জন্য প্রণোদনা আর অসৎ ব্যবসায়ীদের জন্য মূর্তিমান আতঙ্ক। নৈতিকতার ওপর ভিত্তি করে বাজেট কাঠামো হচ্ছে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাভিশনের চেয়ারম্যান আবদুল হক ও ফিনার্স পরিচালক আশরাফ উদ্দিন, এশিয়ান টেলিভিশনের চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশীদ, এনবিআরের সদস্য (আয়করনীতি) পারভেজ ইকবাল, সদস্য (মুসকনীতি) ব্যরিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

অর্থসূচক/মাইদুল/

এই বিভাগের আরো সংবাদ