জবিতে দাবি আদায়ে শিক্ষার্থীদের সমাবেশ

জবি হল

জবি হলজগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অবৈধ দখল হয়ে যাওয়া তিব্বত হলসহ আরও ১০টি হল উদ্ধারের দাবিতে আজ  বুধবার সমাবেশ করছেন হাজারো শিক্ষার্থী।

বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকসহ তিনটি ফটকে তালা দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে প্রধান ফটকের সামনে সমাবেশ করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। সমাবেশের কারণে শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়া কেউ ক্যাম্পাসে ঢুকতে পারছেন না।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ সকাল আটটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে সমাবেশ শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের আরও দুটি ফটকে তালা লাগিয়ে দেন তারা। সমাবেশকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে পৃথক স্থানে প্রায় ১৮টি টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করছেন আন্দোলনকারীরা। এতে সদরঘাট থেকে গুলিস্তান ও যাত্রাবাড়ী সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

সমাবেশে বলা হয়, আবাসন-সমস্যা সমাধান না করেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছে চারদলীয় জোট সরকার। আর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আট বছর পরও শিক্ষার্থীদের আবাসনের ব্যবস্থা করতে পারেনি প্রশাসন। তাই বেদখলে থাকা সব হল উদ্ধার ও নতুন হল নির্মাণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তারা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, শিক্ষক সমিতি, আওয়ামী লীগ সমর্থিত শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল, বিএনপি-সমর্থিত শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল, কর্মকর্তা সমিতি ও বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির নেতা-কর্মীরা বক্তব্য দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অশোক কুমার সাহা বলেন, শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বাধা দেওয়া হবে না। আর ফটক বন্ধ থাকলেও শিক্ষক-কর্মকর্তাদের ক্যাম্পাসে ঢুকতে বাধা দেওয়া হচ্ছে না।

এসএসআর