পাকিস্তান হাইকমিশনারকে ডেকে প্রতিবাদ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পাকিস্তান হাইকমিশনারকে ডেকে প্রতিবাদ

পাকিস্তানের হাইকমিশনারকে তলব করে সে দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দেওয়া বিবৃতির তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ। আজ সোমবার দুপুরে ঢাকায় পাকিস্তানের হাইকমিশনার সুজা আলমকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করে এই প্রতিবাদ জানানো হয়। এ ইস্যুতে পাকিস্তানের হাইকমিশনারের কাছে একটি আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদপত্র তুলে দেওয়া হয়।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, গত শুক্রবার মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ নিয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিজামীর রায়ের প্রতিবাদ জানায়।

আজ পাকিস্তান হাইকমিশনারকে তলবের পর তাকে বলা হয়, জামায়াত নেতা নিজামীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ নিয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যে বিবৃতি দিয়েছে তা পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের মতো অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলাতে পাকিস্তানকে বারবার নিষেধ করে আসছে বাংলাদেশ। এরপরও এ বিষয়ে বক্তৃতা-বিবৃতি দিয়ে সম্পর্কের তিক্ততা বাড়াচ্ছে পাকিস্তান। মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদণ্ডাদেশকে ঘিরে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবারও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। এর প্রতিক্রিয়ায় পাকিস্তানকে দেওয়া লিখিত বক্তব্যে  পাকিস্তানকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানো বন্ধ রাখার পাশাপাশি ১৯৭৪ সালের ত্রিপক্ষীয় চুক্তির অপব্যাখ্যা বন্ধ করতে হবে।

উল্লেখ, শুক্রবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্ট জামায়াতে ইসলামীর নেতা মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির দণ্ডের বিরুদ্ধে পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ করে দেওয়ায় বিষয়টি আমরা গভীর উদ্বেগ ও তীব্র মনঃকষ্টের মধ্য দিয়ে লক্ষ্য করছি। ১৯৭১ সালের ঘটনাবলি প্রসঙ্গে বাংলাদেশের বিতর্কিত বিচার-প্রক্রিয়া নিয়ে আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও মানবাধিকার সংগঠনগুলোর প্রতিক্রিয়াও লক্ষ্য করে যাচ্ছি। ১৯৭৪ সালের এপ্রিলে ত্রিপক্ষীয় চুক্তির চেতনা অনুযায়ী ১৯৭১-এর ঘটনাবলির ক্ষেত্রে ভবিষ্যৎমুখী দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে বাংলাদেশে একটি চূড়ান্ত মীমাংসার প্রয়োজনীয়তা আছে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশর মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের দণ্ডকে ঘিরে ২০১৩ সালের নভেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ছয়বার বক্তৃতা-বিবৃতি দিয়ে এবং জাতীয় ও প্রাদেশিক পরিষদে প্রস্তাব এনে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পাকিস্তান।  এর জবাবে ঢাকায় দেশটির হাইকমিশনারকে বারবার তলব করে এসব বক্তৃতা-বিবৃতি বন্ধ করার কথা বলেছে বাংলাদেশ।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ