রডের বদলে বাঁশ, সেই ঠিকাদার গ্রেপ্তার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

রডের বদলে বাঁশ, সেই ঠিকাদার গ্রেপ্তার

চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় উদ্ভিদ সংগনিরোধ ভবন নির্মাণে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহারকারী ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মেসার্স জয় ইন্টারন্যাশনালের মালিক মনি সিংহকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এছাড়া বিভিন্ন দুর্নীতির মামলায় আরও ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে সংস্থাটি।

ছবিটি সংগৃহীত

ছবিটি সংগৃহীত

আজ রোববার দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য অর্থসূচককে বলেন, গত দুই দিনে দুদকের পৃথক অভিযানে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন মামলায় ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন- জয় ইন্টারন্যাশনালের মালিক মনি সিংহ, নোয়াখালীর মাইজদিকোর্ট উপজেলার হরিনারায়নপুর গ্রামের একেএম সাইফুদ্দিন তরুন, যশোরের নাভারণে অবস্থিত জাপান বাংলাদেশ কালচার এক্সচেঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের চীফ প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর সনৎ কুমার ভাস্কর, একই প্রতিষ্ঠানের হিসাব রক্ষক মো. শরীফুল ইসলাম, ঠিকাদার মো. জালাল উদ্দীন, বি-বাড়িয়ার দক্ষিণ মৌরাইলের বাসিন্দা মো. শরীফ আহমেদ ও তার ভাই সাইফ উদ্দিন আহমেদ এবং মানিকগঞ্জের আন্দারমানিক গ্রামের বাসিন্দা সুধীর কুমার মণ্ডল।

দুদক সূত্র জানায়, বিদেশ থেকে আসা কৃষিজাত পণ্যের মান ও রোগ-বালাই যাচাইয়ের জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্ল্যান্ট প্রোটেকশন উইং চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় উদ্ভিদ সংগনিরোধ ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। সেখানে সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে ২ কোটি ৪২ লাখ ৩৮ হাজার ২২৭ টাকা ব্যয়ে জয় ইন্টারন্যাশনাল নামে ঢাকার এই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে ভবন নির্মাণের দায়িত্ব দেওয়া হয়। কিন্তু নির্মাণাধীন ওই ভবনের লুপ ঢালাইয়ে রড না দিয়ে কাটা বাঁশ (কাবারি বা চটা) এবং খোয়ার পরিবর্তে পরিত্যক্ত সুরকিসহ নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহার করে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ হয়েছে বলে প্রমাণ পায় দুদক।

সূত্র আরও জানায়, প্রাথমিক এই প্রমাণের ভিত্তিতে গত ১১ এপ্রিল কুষ্টিয়ার ধামুরহুদা থানায় একটি মামলা (নং-১৩) দায়ের হয়। এই মামলায় আসামি হিসেবে গত ৬ মে শুক্রবার ঢাকা থেকে মনি সিংহকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অর্থসূচক/মাইদুল/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ