বিদেশি ব্যাংককে পুঁজিবাজারে আনতে কর বাড়ানোর প্রস্তাব
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বিদেশি ব্যাংককে পুঁজিবাজারে আনতে কর বাড়ানোর প্রস্তাব

বিদেশি ব্যাংকগুলোকে দেশের পুঁজিবাজারে আনতে সেসব ব্যাংকের কর বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে দি ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি)।

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি নয় এমন বিদেশি ব্যাংকের আয়কর সাড়ে ৪২ থেকে বাড়িয়ে ৪৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করেছে সংগঠনটি। একই সঙ্গে দেশীয় তফসীলি ব্যাংকের আয়কর ৪০ শতাংশ করারও প্রস্তাব দিয়েছে আইসিএমএবি।

NBR_ICMAB Pre Budgetবুধবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আয়োজিত প্রাক-বাজেট আলোচনায় আইসিএমএবি সভাপতি আরিফ খান এসব প্রস্তাব দেন।

তিনি বলেন, বিদেশি ব্যাংকগুলো দেশে ব্যবসা করে হাজার হাজার কোটি টাকা মুনাফা করছে। কিন্তু তারা এখনও পুঁজিবাজারে তালিকাভু্ক্ত হয়নি। সেগুলো দেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হলে  মানুষ উপকৃত হবে। এজন্য পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এবং তালিকাভুক্ত নয় এমন ব্যাংকগুলোর কর ব্যবধান বাড়ানোর প্রস্তাব করছি।

আরিফ খান বলেন, বর্তমানে ব্যাংকগুলোর সুদহার কমেছে। বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজারে আকৃষ্ট করতে করমুক্ত লভ্যাংশের সীমা ২৫ হাজার টাকা থেকে বাড়ানো প্রয়োজন। এ সীমা বাড়ানো হলে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা পুঁজিবাজারে আসতে আগ্রহী হবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে এক লাখ টাকার জমি, ভবন অথবা এপার্টমেন্ট নিবন্ধনের সময় বাধ্যতামূলকভাবে ই-টিআইএন করতে হয়। সেখানে সব এলাকার ক্ষেত্রে এক লাখ থেকে বাড়িয়ে ৫ লাখ টাকা করার প্রস্তাব করছি।

আইসিএমএবি সভাপতি বলেন, ব্যক্তিগত করমুক্ত আয় সীমা ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩ লাখ টাকা করার প্রস্তাব করছি। একইসঙ্গে পণ্য কেনার উপর ভ্যাট ১৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি। কারণ পৃথিবীর বেশিরভাগ দেশে ভোগ্যপণ্যের উপর ৫ থেকে ১০ শতাংশ ভ্যাট নেয়।

প্রাক-বাজেট আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন এনবিআরের সদস্য (আয়কর নীতি) ইকবাল পারভেজ।

অর্থসূচক/মাইদুল/এসএম

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ