দেশে অবৈধভাবে পণ্য পরিবহন বেড়েছে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

দেশে অবৈধভাবে পণ্য পরিবহন বেড়েছে

দেশে ভ্যাট চালানবিহীন ও অবৈধভাবে পণ্য পরিবহনের প্রবণতা বেড়েছে। গত এক সপ্তাহে ভ্যাট চালানবিহীন, বৈধ কাগজপত্রহীন ও বন্ডের আওতায় অবৈধভাবে খালাসকৃত ৩১টি ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান আটক করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। ছবি সংগৃহীত

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। ছবি সংগৃহীত

আটককৃত ট্রাকগুলোতে পরিবাহিত পণ্যের দাবিদার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ শনিবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি এ তথ্য জানানো হয়।

মূসক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সম্প্রীতি প্রামানিক স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অনেক সময় চালান না দিয়ে,  ভূয়া চালান বা কখনো একই চালান একাধিকবার ব্যবহার এবং বন্ডের আওতায় অবৈধভাবে পণ্য খালাস করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ভ্যাট ফাঁকি দেয়। এসব ব্যবসায়ীর ভ্যাট ফাঁকি ধরতে ঢাকা শহরের বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ, স্পর্শকাতর ও চিন্হিত পয়েন্টে টহল কার্যক্রম পরিচলনা করা হচ্ছে।

গত ৭ দিনে ভ্যাট চালানবিহীন, বৈধ কাগজপত্রহীন ও বন্ডের আওতায় অবৈধভাবে খালাসকৃত ৩১টি  ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান আটক করেছে ভ্যাট গোয়েন্দার সদস্যরা।

এসব ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান আটক করার সময় এর ড্রাইভারের কাছে ভাড়ার রশিদ ছাড়া আর কিছু পাওয়া যায়নি। অথচ আইনানুযায়ী প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ভ্যাট চালান, বি/ই বা শুল্ক ও ভ্যাট পরিশোধের প্রমাণ, বন্ড সুবিধা অনুমোদনের কাগজপত্র থাকার কথা বলে উল্লেখ করা হয় বিজ্ঞাপ্তিতে।

ভ্যাট ও করযোগ্য পণ্য পরিবহনে দেশে প্রচলিত আইন মানার ক্ষেত্রে কিছু ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের মালিক ও কর্মচারীদের বেপরোয়া মনোভাব লক্ষণীয়। কেউ জেনে বুঝে, কেউ না জেনে ভ্যাটের কাগজপত্র দেন না। এভাবে ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে পণ্য পরিবহনের সুযোগ গ্রহণ করছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। ভ্যাট গোয়েন্দা এসব ব্যবসায়ীদের ভ্যাট ফাঁকি রোধে জোরদার ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে জানান সম্প্রীতি প্রামানিক।

অর্থসূচক/মাইদুল/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ