ওয়াসিমকে স্মরণ করিয়ে দেয় মুস্তাফিজ: স্টেইন
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ওয়াসিমকে স্মরণ করিয়ে দেয় মুস্তাফিজ: স্টেইন

টি-২০ ক্রিকেট মানেই ছোট মাঠ। আর ব্যাটসম্যানদের তাণ্ডব। প্রতিটি বলেই তারা চার-ছক্কার জন্য মুখিয়ে থাকেন। ফলে কোণঠাসা হয়ে পড়েন বোলাররা। এমন ফরম্যাটেরই টুর্নামেন্ট আইপিএল। সেখানেও কিনা একদম সাবলীল মুস্তাফিজুর রহমান।

সানরাইজার্স হায়দারাবাদের হয়ে আইপিএলে অভিষেক ঘটে মুস্তাফিজের। ছবি: ইন্ডিয়া টুডে

সানরাইজার্স হায়দারাবাদের হয়ে আইপিএলে অভিষেক ঘটে মুস্তাফিজের। ছবি: ইন্ডিয়া টুডে

গত বছর ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে দুর্দান্ত অভিষেক ঘটে মুস্তাফিজের। তারপর আর থামেননি। টি-২০ বিশ্বকাপেও খেলেছেন অসাধারণ। সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন আইপিএলেও। এবারের আসরে এ পর্যন্ত ৬ ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ৭ উইকেট। বোলার হিসেবে ব্যাটসম্যানরা তার পরীক্ষা নিবেন কিনা, বরং তিনিই মারাত্মক স্লোয়ার-কাটার, ইয়র্কারে নাজেহাল করে ফেলছেন বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই মুস্তাফিজের পারফরম্যান্সের প্রশংসা করে আসছেন সানরাইজার্স হায়দারাবাদের অধিনায়ক, দলের সদস্য ও কর্মকর্তারা। তাদের সঙ্গে নানা সময়ে যোগ দিয়েছেন ধারাভাষ্যকাররা। এবার সেই দলে যোগ দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডেল স্টেইন। তিনি মুস্তাফিজের তীক্ষ্ম স্কিলের প্রশংসা করেছেন। একইসঙ্গে এই লিকলিকে পেসারকে পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরামের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

ইন্ডিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্টেইল বলেন, মুস্তাফিজের তীক্ষ্ম স্কিল রয়েছে। যা ওয়াসিম আকরামের ছিল। আমি বলব না যে ও ওয়াসিমের মতো বল সুইং করাতে পারে, তবে তার বলে অসাধারণ বৈচিত্র্য রয়েছে। যা দেখতে দারুণ লাগে।

এ বছর আইপিএলে মুস্তাফিজুর কিছু উত্তেজনাকর মুহূর্ত উপহার দিয়েছে। ও ইনসুইং ইয়র্কারে আন্দ্রে রাসেলকে যেভাবে বোল্ড করেছিল তা ছিল সত্যিই অনন্য। আর গত শনিবার ৪ ওভারে ১ মেডেনসহ ৯ রানে নেয় ২ উইকেট। যা সত্যিই মনোমুগ্ধকর।

মুস্তাফিজের বল ব্যাটসম্যানরা বুঝে উঠার আগেই ও তাদের পড়ে ফেলে। আর এ কারণেই বাংলাদেশি এই তরুণ বোলার বিশ্বের সব ব্যাটসম্যানদের জন্য আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন ডেল স্টেইন।

বিশ্বের অন্যতম দ্রতগতির এই বোলার বলেন,  আমরা ডানহাতি বোলাররা দ্রুত ও তাড়াতাড়ি বল করার চেষ্টা করি।  ব্যাটসম্যানদের ভড়কে দিতে আমাদের অফ কাটার করি। কিন্তু মুস্তাফিজ বামহাতি পেসার। ও তার অফ কাটার করে। সঙ্গে অসাধারণ গতি পরিবর্তন তো রয়েছেই। যা আগে কেউ দেখেনি।

স্টেইন আরও বলেন,  প্রতি বছর কারো উত্থান ঘটবে, আবার কারো পতন ঘটবে। গত বছর বিশ্বকাপে মিচেল স্টার্ক ও ট্রেন্ট বোল্টের উত্থান ঘটে এবং তারা ভিন্ন কিছু করে দেখায়। সাদা বলে তারা উভয়ই মারাত্মক ইয়র্কার ও সুইং করাতে পারে। এখন আমরা মুস্তাফিজকে পেয়েছি। আমি আশা করবো, ও দিন দিন আরো ভালো করবে।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ