‘রাস্তায় ভিক্ষার চেয়ে বারে নাচা ভালো’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘রাস্তায় ভিক্ষার চেয়ে বারে নাচা ভালো’

রাজ্যে ড্যান্স বারের বিরুদ্ধে মহারাষ্ট্র সরকারের করা আবেদন প্রত্যাখ্যান করে আজ সোমবার সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন, জীবন ধারণের জন্য রাস্তায় ভিক্ষা করার চেয়ে বারে নাচা ভালো।

রাজ্যে ড্যান্স বারের বিরুদ্ধে মহারাষ্ট্র সরকারের করা আবেদন প্রত্যাখ্যান করে আজ সোমবার সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন, জীবন ধারণের জন্য রাস্তায় ভিক্ষা করার চেয়ে বারে নাচা ভালো। ছবি সংগৃহীত

রাজ্যে ড্যান্স বারের বিরুদ্ধে মহারাষ্ট্র সরকারের করা আবেদন প্রত্যাখ্যান করে আজ সোমবার সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন, জীবন ধারণের জন্য রাস্তায় ভিক্ষা করার চেয়ে বারে নাচা ভালো। ছবি সংগৃহীত

রাজ্যে ড্যান্স বার নিষিদ্ধ করতে হবে। এ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন করে মহারাষ্ট্র সরকার। তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত বলেছেন, জীবন ধারণের তাগিদে ভিক্ষার জন্য রাস্তায় যাওয়া বা অসৎ পথে অর্থ উপার্জনের চেয়ে বারে নাচা ভালো।

বিচারপতি দিপক মিশ্র ও শিব কির্তির সমন্বয়ে গঠিত সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ বলেছেন, মহারাষ্ট্র সরকার ড্যান্স বার বন্ধ করতে চায়। কিন্তু ড্যান্স বারে নেচে যদি নারীরা উপার্জন করতে চায় তা দিতে হবে। এটি তাদের সাংবিধানিক অধিকার।

পুলিশি ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করে ড্যান্স বারে যারা নাচে বা নাচতে ইচ্ছুক তাদের এক সপ্তাহের মধ্যে লাইসেন্স দেওয়ার জন্য রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট।

কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১ কিলোমিটারের মধ্যে ড্যান্স বার চালুতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আইন প্রণয়নেরও সমালোচনা করেছেন সর্বোচ্চ আদালত।

গত ১২ এপ্রিল সর্বসম্মতিক্রমে ড্যান্স বার রেগুলেশন বিল পাস করে মহারাষ্ট্র সরকার। তাতে লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর বিধান রাখা হয়।

নতুন বিল অনুযায়ী, ড্যান্স বারের মালিক বা পরিচালনাকারী ধার্য আইন ভঙ্গ করলে তাদের সর্বোচ্চ ৫ বছর কারাদণ্ড এবং ২৫ হাজার রুপি জরিমানা গুণতে হবে।

নতুন শর্ত অনুযায়ী, কোনো শিক্ষা বা ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান থেকে ১ কিলোমিটার দূরে ড্যান্স বার হতে হবে। তা খোলা রাখতে হবে সন্ধা ৬টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এবং বারে মদ সরবরাহ করা যাবে না। নতুন বিলে আবাসিক এলাকাতেও ড্যান্স বার নিষিদ্ধ করা হয়।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ