ভুবনেশ্বর নয়, প্রকৃত নায়ক মুস্তাফিজ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ভুবনেশ্বর নয়, প্রকৃত নায়ক মুস্তাফিজ

ভুবনেশ্বর কুমার গতকাল বৃহস্পতিবার সানরাইজার্স হায়দারাবাদের হয়ে গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে বোলিং আক্রমণ শুরু করেন। তিনি ইনিংসের প্রথম ওভারের চতুর্থ বলেই অ্যারন ফিঞ্চের উইকেট তুলে নেন। আর ইনিংসের শেষ ওভারে এই ডানহাতি পেসার তুলে নেন আরও তিন উইকেট। সব মিলিয়ে ভুবনেশ্বরের শিকার ৪ উইকেট। এজন্য ম্যাচসেরারও পুরস্কার বগলদাবা করেন তিনি।

গুজরাটের বিপক্ষে ভুবনেশ্বর নয়, মুস্তাফিজই প্রকৃত । ছবি: হিন্দুস্তান টাইমস

গুজরাটের বিপক্ষে ভুবনেশ্বর নয়, মুস্তাফিজই প্রকৃত । ছবি: হিন্দুস্তান টাইমস

কিন্তু প্রথম স্পেল শেষে ভুবনেশ্বর যখন বল করতে আসেন ততক্ষণে গুজরাট লায়ন্সের রানের গতিতে রাশ টেনে ধরেন সতীর্থ পেসার মুস্তাফিজুর রহমান।

ম্যাচের বোলিং বিশ্লেষণে দেখা যায়, সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারীর নাম ভুবনেশ্বর কুমার। কিন্তু সবচেয়ে ইকোনমি রেট কম মুস্তাফিজুর রহমানের। ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ১ উইকেট। ইকোনমি রেট ইর্ষণীয়, মাত্র ৪.৭৫। মূলত তার প্রথম তিন ওভারই সুরেশ রায়নার দলকে বেঁধে ফেলে সানরাইজার্স।

গত বছর অভিষেকের পর থেকেই নানা কীর্তি গড়ছেন এই ২০ বছর বয়সী পেসার। তার অনবদ্য পারফরম্যান্সে সেই বছর ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতে বাংলাদেশ। শুধু তাই নয়, দারুণ ফর্মে থাকা ধোনি বাহিনীকে মাটিতে নামিয়ে আনেন তিনি।

টি-২০ বিশ্বকাপেও সেই খ্যাতি ধরে রাখেন মুস্তাফিজুর রহমান। এরপর আইপিএলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিয়ে সব আলো কেড়ে নিয়েছেন নিজের দিকে। টুর্নামেন্টে অভিষেকের পর থেকেই ভালো খেললেও মূলত গতকালই দেখিয়েছেন তার বোলিংয়ের সর্বোচ্চ কারিশমা।

গতকাল সর্বসাকুল্যে ১৩৫ রান তুলতে সক্ষম হয় গুজরাট লায়ন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১০ উইকেটের বড় জয় তুলে নেন  ওয়ার্নার বাহিনী।

আইপিএলের নবম আসরে ১ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে মুস্তাফিজকে কিনে নিয়েছে সানরাইজার্স হায়দারাবাদ। এই দামে তাকে কিনে যে হায়দারাবাদ ভুল করেনি তার প্রতিদান দিচ্ছেন দিন যত গড়াচ্ছে তত বেশি।

মুস্তাফিজের উড়ন্ত পারফরম্যান্সে ভীষণ মুগ্ধ সানরাইজার্স দলের মেন্টর ভিভিএস লক্ষণ। শুরু থেকেই তার প্রশংসা করে আসছেন তিনি। গতকাল ম্যাচের পর আবারো স্লোয়ার-কাটার মাস্টারকে প্রশংসায় ভাসালেন ভারতীয় এই কিংবদন্তি ক্রিকেটার। তিনি বলেন,  কোনো একজনের (মুস্তাফিজ) আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার এক বছর ডাঙায়নি। অথচ এর মধ্যে সে হয়ে উঠেছে বিশেষজ্ঞ। সে যা করছে তা সত্যিকার অর্থেই অসাধারণ।

তিনি আরও বলেন, সে একজন স্মার্ট বোলার। শুরুতেই ও তিন থেকে চার রকম ভ্যারিয়েশন দিতে পারে। ডেথেও তিন থেকে চার রকম ভ্যারিয়েশন দিতে পারে। এসবের ওপর তার পুরো নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

আজ শুক্রবার হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল মুস্তাফিজ এসবই দেখিয়েছেন। তিনি স্লোয়ার, লেগ কাটার ও ইয়র্কার ছুঁড়েছেন।যা খেলতে ব্যাটসম্যানরা হিমশিম খেয়েছেন। ২৪টি বল করে ১০টি ডট দিয়েছেন। ১ উইকেটের বিনিময়ে রান দিয়েছেন ১৯। এর মধ্যে ১টি চার খেয়েছেন। তাও তা মিসফিল্ডে। সত্যিকার অর্থেই গুজরাটের বিপক্ষে প্রকৃত নায়ক মুস্তাফিজ।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ