আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » বিবিধ

আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস

আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস। বিশ্বের প্রকৃতি ও পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনতা ও ভালোবাসা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে এবং পৃথিবীকে বাসযোগ্য রাখতে প্রতিবছর ২২ এপ্রিল দিবসটি উদযাপিত হয়। বিশ্ব ধরিত্রী দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘পৃথিবীর জন্য বৃক্ষ’।tree

পৃথিবীর অনেক দেশেই সরকারিভাবে এই দিবসটি পালন করা হয়। উত্তর গোলার্ধের দেশগুলিতে বসন্তকালে আর দক্ষিণ গোলার্ধের দেশগুলিতে শরৎকালে ধরিত্রী দিবস পালিত হয়।

জলবায়ু সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ১৯৭০ সালে যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় দুই কোটি মানুষ রাস্তায় নেমে আসেন। ওই সময় মার্কিন সিনেটর গেলর্ড নেলসন ২২ এপ্রিলকে ধরিত্রী দিবস হিসেবে ঘোষণা করেন। তারপর থেকে প্রতি বছরই  প্রচলন করেন। পালিত হয় বিশ্ব ধরিত্রী দিবস। এই হিসাবে এ বছর ৪৬তম বারের মতো সারা বিশ্বজুড়ে এই দিবস পালিত হচ্ছে।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশের পরিবেশ আন্দোলন সংস্থা পবা ‘মৌসুমী ফল উৎপাদনে বিষ, বিপন্ন মানুষ- বিপন্ন প্রকৃতি’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করেছে। এ ছাড়াও দিবসটি পালনে বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ।

১৯৭০ সালে সিনেটর গেলর্ড নেলসনের নেতৃত্বেই বিশ্বের জলবায়ু সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির প্রয়াস শুরু হয়। তার অক্লান্ত চেষ্টায়ই যুক্তরাষ্ট্রে পরিবেশ রক্ষা সংস্থা গড়ে ওঠে। এ ছাড়া দূষণমুক্ত বায়ু, পানি ও হুমকির মুখে থাকা জীব প্রজাতি সম্পর্কে আইন করা হয়। অবশ্য পরে বিশ্বজুড়েই জলবায়ু সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি হয় এবং পরিবেশ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে।

ধরিত্রী দিবসের ২০ বছর পূর্তিতে ১৯৯০ সালে আরেকটি বড় আন্দোলন শুরু হয়। ওই বছর প্রথম আন্তর্জাতিক ভাবে পালিত হয় এবং ১৪১টি জাতি বা দেশ তাতে অংশগ্রহন করে।

বিশ্বে এখন এই যে ঘন ঘন ভূমিকম্প, খরা, অতিবৃষ্টি আর পাহাড়ি ঢল এর সবই আমাদের নিজেদের ডেকে আনা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর সবই হচ্ছে বিশ্বের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায়। তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে বরফ গলে সাগরের উচ্চতা বাড়ছে। এই অবস্থায় প্রচুর গাছ লাগনো ছাড়া ঝুঁকি কমানোর কোনো উপায় নেই।

পরিবেশবাদীদের দাবি, আবাসভূমিকে বাঁচাতে আবারও জোরদার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। বিশ্বের অন্যান্য দেশ এ ব্যাপারে যতটা সোচ্চার আমরা ঝুঁকির শীর্ষে থেকেও ততটাই। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব থেকে দেশকে বাঁচাতে এক দিকে যেমন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে জোটবদ্ধ আন্দোলন দরকার, তেমনি দরকার নিজের দেশের প্রত্যেক নাগরিককে এ ব্যাপারে সচেতন করে তোলা। এবারের ধরিত্রী দিবসে সেটাই হোক আমাদের অঙ্গীকার।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ