শিক্ষিকার সঙ্গে হাত মেলাতে না চাওয়ায়….
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

শিক্ষিকার সঙ্গে হাত মেলাতে না চাওয়ায়….

শিক্ষিকার সঙ্গে হাত মেলাতে অসম্মতি জানানোয় আলোচিত সেই দুই কিশোর মুসলিম ভাইয়ের পরিবারের নাগরিকত্ব স্থগিত করেছে সুইজারল্যান্ড।

নারী শিক্ষিকার সঙ্গে হাত মেলাতে অসম্মতি জানানোয় সেই দুই কিশোর মুসলিম ভাইয়ের পরিবারের নাগরিকত্ব স্থগিত করেছে সুইজারল্যান্ড। ছবি: বিবিসি

নারী শিক্ষিকার সঙ্গে হাত মেলাতে অসম্মতি জানানোয় সেই দুই কিশোর মুসলিম ভাইয়ের পরিবারের নাগরিকত্ব স্থগিত করেছে সুইজারল্যান্ড। ছবি: বিবিসি

আজ বুধবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৪ ও ১৫ বছর বয়সী ওই দুই সহোদর ভাই সম্প্রতি থেরউইলের শিক্ষা কর্মকর্তাদের জানায়, পরিবারের সদস্যের বাইরে কোনো নারীর সঙ্গে শারীরিক স্পর্শ ইসলামবিরোধী।

ওই সময় কর্মকর্তারা লিঙ্গ বৈষম্য এড়াতে সেই দুই কিশোরকে পুরুষ শিক্ষকদের সঙ্গেও হাত মেলানো থেকে বিরত থাকার কথা বলেন।

তবে তা নিয়ে ঘোর বিরোধীতা করেন রাজনীতিবিদরা। তারা বলেন, একে অপরের সঙ্গে হাত মেলানো তাদের দেশীয় সংস্কৃতির একটি অংশ।

ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে ঘটনাটি দেশটিতে ব্যাপক বিতর্কের সৃষ্টি করেছে। বাসেল-কাউন্ট্রি ক্যান্টন এ বিষয়ে আইনি পরামর্শ চেয়েছেন।

ক্যান্টনের এক মুখপাত্র বলেছেন, পরিবারটির নাগরিকত্ব প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়েছে। আর সবার ক্ষেত্রে যা করা হয় তাদের ক্ষেত্রেও একই প্রক্রিয়া বেছে নেওয়া হয়েছে।

ওই দুই কিশোরের বাবা সিরিয়ায় ইমামতি করতেন। ২০০১ সালে তিনি পরিবার নিয়ে সুইজারল্যান্ডে যান এবং সেখানে আশ্রয় গ্রহণ করেন।

তাকে আশ্রয় দেওয়ার অনুরোধ কোন শর্তে গ্রহণ করা হয় তা আরও খতিয়ে দেখছে বাসেল মাইগ্রেশন অফিস।

সুইজারল্যান্ডে মোট ৮০ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে প্রায় ৩ লাখ ৫০ হাজার মুসলিম।

এর আগে স্কুলে নিজ মেয়েদের সাঁতার শেখানো নিষিদ্ধের দাবি জানান দেশটির মুসলিম পিতামাতা। এমনকি স্কুলে বোরখা নিষিদ্ধ করতে চাইলে আদালতে মামলা ঠুকেন মুসলিম পরিবার। শেষ পর্যন্ত সেই রায় আসে মুসলিমদের পক্ষেই।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ