দিনে লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি দেয় স্টার কাবাব!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

দিনে লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি দেয় স্টার কাবাব!

প্রতারণামূলকভাবে প্রতিদিন সরকারের লাখ লাখ টাকার মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) ফাঁকি দিয়ে আসছে রাজধানীর অভিজাত রেস্তোরাঁ স্টার কাবাব। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) এক অভিযানে ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পাওয়া যায় গেছে বলে জানিয়েছে এনবিআর।

স্টার কাবাবের একটি শাখায় চলছে এনবিআরের অভিযান।

স্টার কাবাবের একটি শাখায় চলছে এনবিআরের অভিযান।

আজ সোমবার ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় অবস্থিত স্টার কাবাব ও রেস্তোরাঁ গ্রুপের মালিকানাধীন ১১টি ইউনিটে অভিযান চালায় এনবিআরের ৮টি টিম।

অভিযানে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগটি প্রমাণিত হওয়ায় ভ্যাট গোয়েন্দা কর্মকর্তারা প্রতিষ্ঠানটির বাণিজ্যিক দলিলাদি জব্দ করেন। জব্দকৃত এসব দলিল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে মামলা করা হবে বলে জানায় এনবিআর।

সোমবার এনবিআর ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে এনবিআর সদস্য  (ভ্যাট)  রেজাউল হাসান বলেন, আজ ভ্যাট গোয়েন্দার ৮টি টিম রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অবস্থিত স্টার কাবাব ও রেস্তোরাঁ গ্রুপের মালিকানাধীন ১১টি ইউনিটে অভিযান পরিচালনা করে। দীর্ঘদিন অনলাইনে ও টেলিফোনে তাদের ইউনিটগুলোর বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ পাওয়ার প্রেক্ষিতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

তিনি বলেন, কাঁচা চালান ইস্যু করা, ইসিআর থাকা সত্ত্বেও চালান না দেওয়া, নিজস্ব প্যাডে ও সাদা কাগজে হাতে লেখা বিল প্রদান, মূল্য তালিকায় ভ্যাট অন্তর্ভূক্ত/বহির্ভূত উল্লেখ না করাসহ বিভিন্ন অভিযোগে স্টার কাবাবে অভিযান চালানো হয়েছে।

তিনি বলেন, স্টার হোটেল ও কাবাবের মতো বড় প্রতিষ্ঠানগুলো কোটি কোটি টাকা ভ্যাঁট ফাঁকি দেওয়ায় ছোট প্রতিষ্ঠানগুলো ভ্যাট প্রদানে উৎসাহিত হচ্ছে না। বড় প্রতিষ্ঠানগেুলোকে জবাবদিহিতার আওতায় আনার লক্ষ্যে এবং ভ্যাট ফাঁকিরোধে এ ধরণের অভিযান পরিচালনার নির্দেশ রয়েছে।

অভিযানকালে ভ্যাট গোয়েন্দার সদস্যরা অভিযোগগুলোর সত্যতা পান বলে জানান মূসক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন চৌধুরী।

তিনি জানান, ভ্যাট গোয়েন্দারা এলিফ্যান্ট রোডে স্টার হোটেল ও রেস্টুরেন্টের বেশ কিছু কাঁচাচালান ইস্যুর প্রমাণসহ হাতে নাতে ম্যানেজারকে ধরেন। একইভাবে ঠাটারি বাজার, ধানমন্ডি, বনানী, কারওয়ান বাজার শাখায় ব্যাপকহারে কাঁচাচালান ইস্যু করছে। এতে প্রতিদিন সরকার লাখ লাখ টাকা ভ্যাট প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। স্টার কাবাব ও বেকারি একটি রেজিস্ট্রেশনের আওতায় দুটো নন ফিসক্যাল ইসিআর ব্যবহার করছে।

ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গোয়েন্দা কর্মকর্তারা প্রতিষ্ঠানটির বাণিজ্যিক দলিলাদি জব্দ করে নিয়ে আসেন। জব্দকৃত দলিলাদি পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ফাঁকিকৃত ভ্যাট উদঘাটন করে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, গত ৬ মাসে ভ্যাট গোয়েন্দা দপ্তর প্রায় ৭০টি ভ্যাট ফাঁকির অভিযান পরিচালনা করেছে। এসব অভিযানে ব্যাপক ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পাওয়া যায়।

অর্থসূচক/মেহেদী/মাইদুল/টি/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ