১৫ দিন পর ফিরলেন তনুর ছোট ভাইয়ের বন্ধু
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

১৫ দিন পর ফিরলেন তনুর ছোট ভাইয়ের বন্ধু

১৫ দিন নিখোঁজ থাকার পর বাড়ি ফিরেছেন কুমিল্লার ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী সোহাগী জাহান তনুর ছোট ভাইয়ের বন্ধু মিজানুর রহমান সোহাগ। আজ মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মিজানুর বুড়িচং উপজেলার নারায়ণসার গ্রামে নিজ বাড়িতে ফেরেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

মিজানুরের বাবা ও বড় বোনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ফজরের নামাজের পর কুমিল্লা সেনানিবাস সংলগ্ন নাজিরাবাজার এলাকার একটি রাস্তায় লুঙ্গি পরা অবস্থায় মিজানুরকে দেখতে পান স্থানীয়রা। তারাই মিজানুরকে বাড়িতে পৌঁছে দেন।

তার বাবা নুরুল ইসলাম জানান, মিজানুরকে খুব বিমর্ষ দেখাচ্ছে। তার চেহারা ফ্যাকাসে হয়ে আছে। এতোদিন কোথায় ছিল, কীভাবে বাড়ির কাছে এলো- এসব নিয়ে কিছু বলতে পারেনি সে।tanu

মিজানুরের বড় বোন খালেদা আক্তার বলেন, ১৫ দিন আগে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় মিজানুরের গায়ে যে লুঙ্গি ছিল- সেটি পরেই সে বাড়ি ফিরেছে। সে এখন খুবই ক্লান্ত। এতোদিন কোথায় এবং কেমন ছিল- সে বিষয়ে তার সঙ্গে কথা হয়নি। তবে যেখানে ছিল, ভালো ছিল বলে জানিয়েছে সে।

প্রসঙ্গত, গত ২০ মার্চ কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকায় সোহাগী জাহান তনুর রক্তাক্ত মরদেহ পাওয়া যায়। পুলিশের সুরতহাল প্রতিবেদনে ধর্ষণের পর খুনের কথা বলা হলেও ময়নাতদন্তে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন ফরেনসিক চিকিৎসক দল।

তনুর হত্যাকারীদের বিচার দাবিতে দেশজুড়ে আন্দোলন শুরু হয়। তার সহপাঠীদের উদ্যোগে কুমিল্লায় অবরোধ; ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তনুর হত্যাকারীদের বিচার দাবিতে সোচ্চার হয়েছে দেশের মানুষ। অন্যদিকে ঢাকা থেকে কুমিল্লা রোডমার্চ করে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা।

তনুর বাবার ইয়ার হোসেন কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের একজন অফিস সহায়ক। তনুর মরদেহ পাওয়ার পরই অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে কুমিল্লার কোতয়ালী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন তিনি।

এরপর গত ২৭ মার্চ গভীর রাত থেকে নিখোঁজ হন তনুর ছোট ভাই আনোয়ারের বন্ধু মিজানুর রহমান সোহাগ। তার পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, ২৭ মার্চ রাত দেড়টার দিকে মিজানুরের বাড়িতে তল্লাশি চালানোর পর তাকে সাদা মাইক্রোবাসে করে নিয়ে যায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তবে মিজানুরের পরিবারের এই দাবি অস্বীকার করেছিল পুলিশ, র‌্যাব, গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা।

মিজানুরের পরিবারের পক্ষ থেকে গত ৩০ মার্চ বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়।

অর্থসূচক/পিএ/বিএন/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ