ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অভিনব কায়দায় শিশু চুরি
মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » চট্টগ্রাম ও বন্দর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অভিনব কায়দায় শিশু চুরি

Brahmanbaria Dogব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতাল থেকে অভিনব কায়দায় সদ্যজাত এক শিশু চুরির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসপাতালের প্রসূতি ওয়ার্ডে ঘটে এই ঘটনা। সদ্যজাত সন্তান হারিয়ে শহরতলীর সুহিলপুর মীরহাটি গ্রামের রিকশাচালক আবদুর রউফের স্ত্রী এখন পাগলপ্রায়।

জানা যায়, সদর উপজেলার সুহিলপুর মীরহাটি গ্রামের দরিদ্র রিকশাচালক আবদুর রউফের স্ত্রী প্রসবজনিত কারণে গত বুধবার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। ওইদিন দুপুরে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন ওই প্রসূতি। সন্তান প্রসবের পরই অপরিচিত এক মহিলা (৩৫) ওষুধ, খাবার এবং শিশুটির মাকে সেবা দিয়ে সহযোগিতা করতে থাকে। হতদরিদ্র রিকশাচালক আবদুর রউফ ও তার স্ত্রী বিষয়টিকে মানবিকতা হিসেবেই মেনে নেয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসপাতালের প্রসূতি ওয়ার্ডের কর্তব্যরত সেবিকা ওষুধের স্লিপ দিলে আব্দুর রউফ ওষুধ কিনতে বেড়িয়ে যান। তার ফিরতে দেরি দেখে ওই সেবিকা পুনরায় স্লিপ দিয়ে ওষুধ আনার জন্য তাগাদা দেয়। এ সময় ওই অপরিচিত মহিলা নবজাতক শিশুকে কোলে নিয়ে ওষুধ কিনে আনার ভান করে ওয়ার্ড থেকে বের হয়ে যান। আর এই যাওয়ার পরই সদ্যজাত শিশুসহ নিখোঁজ হন ওই মহিলা। ওষুধসহ কিনে শিশুটির পিতা আবদুর রউফ ফিরে এসে এই ঘটনা জেনে হতবাক হয়ে পড়েন। পুনরায় বেড়িয়ে গিয়ে হাসপাতালের সামনের সকল ওষুধের দোকান তন্ন তন্ন করে খোঁজেও পাননি ওই মহিলাকে।

এদিকে সন্তান হারিয়ে প্রসূতি মা এখন পাগলপ্রায়। এদিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন যেভাবে মহিলাটি তাদের দেখাশুনা করছিলো তাতে মনে হয়েছে তিনি রোগীর নিকটাত্মীয়। অন্যদিকে রোগীর লোকজন মনে করছেন ওই মহিলা হাসপাতালের লোক। খবর পেয়ে সদর মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,‘বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ