পদত্যাগ করলেন ওয়াকার ইউনিস
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পদত্যাগ করলেন ওয়াকার ইউনিস

পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই কোচের দায়িত্ব থেকে সরে গেলেন ওয়াকার ইউনিস। গতকাল সোমবার লাহোরে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন তিনি।

একই দিনে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন শহীদ আফ্রিদি। তবে ঘরোয়া ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে দেশের প্রয়োজনে আন্তর্জাতিক ম্যাচে অংশ নেবেন বলেও আশ্বাস দেন এই মারকুটে ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

আগামী মে সাসে পিসিবির সঙ্গে ওয়াকার ইউনিসের চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তবে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই বিদায়ের ষোষণা দিলেন পাকিস্তানের সাবেক এই ফাস্ট বোলার। তিনি বলেন, ভারাক্রান্ত হৃদয়েই আমি আজ বিদায়ের ঘোষণা দিচ্ছি।

Waqar Younis2

প্রশিক্ষণ দিতে ব্যস্ত ওয়াকার ইউনিস। ফাইল ছবি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসর থেকে দেশে ফিরেই ওয়াকার ইউনিস ঘোষণা দিয়েছিলেন, প্রয়োজনে পাকিস্তানের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়াবো।

একইসঙ্গে দলের জন্য কিছু সংস্কার প্রস্তাবও দিয়েছিলেন ওয়াকার ইউনিস। শহীদ আফ্রিদির অধিনায়কত্ব নিয়েও সমালোচনা করে তিনি বলেন, দল নির্বাচনে তার কোনো ভূমিকা ছিল না।

বিদায় ঘোষণা দেওয়ার সময় ওয়াকার বললেন, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডে আমার প্রস্তাবগুলো বাস্তবায়িত হোক। ২০১৫ সালে যখন প্রথম প্রস্তাব করেছিলাম তখনও অনেক কিছু আমলে নেওয়া হয়নি।

সম্প্রতি ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং এর আগে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে তেমন কিছুই করতে পারেনি পাকিস্তান ক্রিকেট দল। প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে আয়োজিত এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে জয় পেলেও বাংলাদেশ ও ভারতের কাছে পরাজিত হয়ে বাড়ি ফিরে আফ্রিদির দল।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও সুপার টেনে নির্ধারিত ৪ ম্যাচ খেলেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে ওয়াকারের শিষ্যদের। ওই ৪ ম্যাচের মধ্যে শুধু বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় পায় পাকিস্তান। অন্য ৩ ম্যাচে ভারত, নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে দাঁড়াতেই পারেনি এশিয়া ক্রিকেটের অন্যতম শক্তিশালী দলটি।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে প্রথমবার কোচের দায়িত্ব নেন ওয়াকার ইউনিস। সে সময় এক বছর কোচ ছিলেন তিনি। দ্বিতীয় দফায় ২০১৪ সালে আবারও ওযাকার ইউনিসকে কোচের দায়িত্ব দেয় পিসিবি। দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নেওয়ার পর পাকিস্তানকে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে নিয়ে যান সাবেক এই ফাস্ট বোলার। তবে এসময়ের মধ্যে কয়েকটি টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েও কোনো বড় শিরোপা আনতে পারেনি ওয়াকারের শিষ্যরা।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ