করজোড়ে ক্ষমা চাইলেন ওয়াকার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ক্রিকেট

করজোড়ে ক্ষমা চাইলেন ওয়াকার

টি-২০ বিশ্বকাপে ৪ ম্যাচ খেলে ৩ ম্যাচেই হেরেছে পাকিস্তান। বাংলাদেশের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয় দিয়ে শুরু করলেও ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অত্যন্ত বাজেভাবে হেরেছে দলটি। এই প্রথম কোনও টি-২০ বিশ্বকাপে এত বাজে পারফরম্যান্স প্রদর্শন করল এক সময় দুনিয়া কাঁপানো ইমরান-ওয়াসিম-শোয়েবের দেশ। যার কারণে ভারত ছেড়ে লাহোরে বিমানবন্দরে পৌঁছা মাত্রই ‘লজ্জা লজ্জা’ ধিক্কারে নাজেহাল হতে হয় পাকিস্তান দলকে।

আজ মঙ্গলবার লাহোরে পিসিবি হেডকোয়ার্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের বাজে পারফরম্যান্সের জন্য দেশবাসীর কাছে করজোড়ে ক্ষমা চান পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ ওয়াকার ইউনিস। ছবি: দুনিয়া নিউজ টিভি

আজ মঙ্গলবার লাহোরে পিসিবি হেডকোয়ার্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের বাজে পারফরম্যান্সের জন্য দেশবাসীর কাছে করজোড়ে ক্ষমা চান পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ ওয়াকার ইউনিস। ছবি: দুনিয়া নিউজ টিভি

এরপর দেশে ফিরে দেশবাসীর কাছে করজোড়ে ক্ষমা চাইতেও দেরি করলেন না পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ ওয়াকার ইউনিস।

আজ মঙ্গলবার লাহোরে পিসিবি হেডকোয়ার্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমি করজোড়ে দেশবাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমাদের পারফরম্যান্সে দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ হয়নি।

টি-২০ বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়ার পর জোর গুঞ্জন, ওয়াকার ইউনিসসহ পাকিস্তান দলের পুরো কোচিং স্টাফকে বরখাস্ত করতে পারে পিসিবি। অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে আফ্রিদিকেও। তবে এতে দ্বিমত পোষণ করেছেন ওয়াকার ইউনিস। তিনি বলেন, বরখাস্তই আসল সমাধান নয়। এতে উন্নতি আসে না। বরং পরিবর্তন দরকার সিস্টেমে।

পাকিস্তানের সাবেক এই গতি তারকা বলেন, কর্তৃপক্ষের আগে উচিৎ হবে ভুলগুলো খুঁজে বের করা। তারপর তার সমাধান করা।

তিনি বলেন, দলের বৃহত্তর স্বার্থে আমি সরে দাঁড়াতে প্রস্তুত। বোর্ড যদি মনে করে, আমি সরে দাঁড়ালে সব সমস্যার সমাধান হবে তাহলে আমি বিন্দুমাত্র দেরি করব না।

রিভার্সসুইং প্রবক্তা বলেন, আমি আমার রিপোর্ট পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের  (পিসিবি) কাছে জমা দিয়েছি। জনসম্মুখে তা নিয়ে কিছু বলতে চাই না। কারণ, ঘরের সমস্যা আমি অভ্যন্তরীণভাবেই সমাধান করতে চাই।

ওয়াকার এও বলেছেন, এই ব্যর্থতা পুরো দলেরই। কোনও নির্দিষ্ট ব্যক্তির উপর দোষ চাপানো যাবে না।

২০০৯ সালে টিম শ্রীলঙ্কার বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর পাকিস্তানে কোনও দল খেলতে যাচ্ছে না। তাই গত সপ্তাহেই তিনি দেশে ক্রিকেট ফেরানো। একইসঙ্গে হোম ক্রিকেট কাঠামোয় আমূল পরিবর্তন আনারও কথা বলেন।

ওই সময় ওয়াকার ইউনিস বলেন, দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত না হলে এমনিতেই ক্রিকেটের ভিত দুর্বল হয়ে পড়ে।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ